অপটিক্যাল ফাইবার কি?অপটিক্যাল ফাইবার এর কাজ কি?অপটিক্যাল ফাইবার কত প্রকার?

 আমরা আজকে অপটিক্যাল ফাইবার সম্পর্কে যে সব বিষয় জানতে পারবঃ-

  • অপটিক্যাল ফাইবার কিভাবে কাজ করে?
  • অপটিক্যাল ফাইবার এর ব্যবহার হয়:
  • অপটিক্যাল ফাইবার এর প্রকারভেদ
  • অপটিক্যাল ফাইবার অংশে ভাগ করা হয়:
  • Main Optic Core
  •  Cladding.
  •  Cotting/ Jacket.

Optical fiberঅপটিক্যাল ফাইবার কি?

অপটিক্যাল ফাইবার(ইংরেজি: Optical fiber) একধরনের পাতলা, স্বচ্ছ তন্তু বিশেষ, সাধারণত বিশুদ্ধ কাচ (সিলিকা) অথবা প্লাস্টিক দিয়ে বানানো হয়, যা আলো পরিবহনে ব্যবহৃত হয়। … অপটিক্যাল ফাইবার সাধারণত টেলিযোগাযোগের ক্ষেত্রে বহুল ব্যবহৃত হচ্ছে।

ফাইবার অপটিকস ফলিত বিজ্ঞান ও প্রকৌশলের সেই শাখা যা এই অপটিক্যাল ফাইবার বিষয়ে আলোচনা করে।অপটিক্যাল ফাইবার দিয়ে লম্বা দুরত্বে অনেক কম সময়ে বিপুল পরিমাণ তথ্য পরিবহন করা যায়। অপটিক্যাল ফাইবারের আরো অনেক সুবিধার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- এই ব্যবস্থায় তথ্য পরিবহনে তথ্য ক্ষয় কম হয়, তড়িৎ-চুম্বকীয় প্রভাব থেকে মুক্ত ইত্যাদি

অপটিক্যাল ফাইবার কিভাবে কাজ করে?

অপটিক্যাল ফাইবার এক রকমের যোগাযোগ মাধ্যম, এতে সিগন্যাল বা ডাটা আলোর মাধ্যমে একস্থান থেকে অন্য স্থানে প্রেরণ করা হয়।ধরুন একটি করিডোরের এপাশ থেকে ওপাশে আলো দিয়ে কাউকে সংকেত দিবেন, যেহেতু আমরা জানি আলো সরল পথে চলে, করিডোর যদি সম্পূর্ণ সোজা হয় তাহলে তো খুব সহজেই সিগন্যাল ওপাশে চলে যাবে। কিন্তু যদি বাঁকা হয়?তাহলে যেখানে বাঁকা ওখানে একটা আয়না বসিয়ে দিলেই আবার আলো পৌঁছানো যাবে ওপর পাশে।

অপটিক্যাল ফাইবার, একধরনের ক্যাবল যার ভেতর খুব সরু কাচের দণ্ড থাকে, একপাশ থেকে আলো ফেললে অপর পাশে পৌঁছে যায়। আলো কাচের মধ্যে প্রতিফলিত হতে হতে নির্দিষ্ট ডিকোডিং রিসিভার এ পৌঁছায়, সেখানে আলোর মাধ্যমে পাঠানো তথ্য ডিকোড হলে আমরা তথ্য টি কি তা বুঝতে পারি।প্রতিটি কাচের সরু দণ্ড গুলো বেশ সরু প্রায় চুলের ন্যায়,

তাই একেকটি ক্যাবলের ভেতর অনেকগুলো কাচের দণ্ড থাকতে পারে।আলোর মাধ্যেমে তথ্য পাঠালে সেই সিগন্যাল একটা সময় পরে দুর্বল হয়ে পড়ে, তাই অনেক দূরে দূরে ক্যাবলের মাঝে বুস্টার লাগানো থাকে, এগুলো সিগনালের শক্তি বাড়ায় এবং তথ্য নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে পৌঁছাতে সহায়তা করে।

অপটিক্যাল ফাইবার এর প্রধান তিনটি অংশে ভাগ করা হয়:

১. Main Optic Core

২. Cladding.

৩. Cotting/ Jacket.

১. Main Optic Core.

অপটিক্যাল ফাইবার এর যে প্রধান তন্তু থাকে,Main Optic Core বলা হয়। যেটি থাকে সবার শেষে।

২. Cladding.

এইটি মেইন কোর এর উপর থাকে, এর সাহায্যে আলোর প্রতিসারঙ্ক (Refractive index) বেশি হয়ে থাকে।

৩. Cotting/ Jacket.

অপটিক্যাল ফাইবার এর কে, Procted করার জন্য, এই সব লেয়ার ব্যবহৃত হয়।

বিঃদ্রঃ সমুদ্রের ভিওর দিয়ে বা মাটির ভিওর দিয়ে যে সব অপটিক্যাল ফাইবার বিছানো হয়। তা আরো বেশি শক্তিশালি হয়ে থাকে।

ওই সব অপটিক্যাল ফাইবার এ ৮টি লেয়ার ব্যবহার করা হয়। যাতে ওই ক্যাবল গুলো আরে বেশি শক্তিশালী হয়।

ওই গুলোর ভিওর স্টিল এর লেয়ার ও ব্যবহৃত হয়।

অপটিক্যাল ফাইবার এর প্রকারভেদ

  • অপটিক্যাল ফাইবার এর কাজের উপর ভিত্তি করে ITU (International Telecommunication Union) ফাইবার এর দুটি মান প্রকাশ করে।
  • প্রথমটি হলো সিঙ্গেল মোড অপটিক্যাল ফাইবার আর দ্বিতীয়টি হলো মাল্টি মোড অপটিক্যাল ফাইবার।
  • Single Mode অপটিক্যাল ফাইবার এর কেন্দ্র পথ এর ব্যাস হয়ে থাকে 9 micron। এর ভিওর দিয়ে লেজার আলোক রশ্মি পাঠানো হয়।
  • লেজার এর রশ্মি এর তরঙ্গ দৈর্ঘ্য হয়ে থাকে।13,00 -1500 nano meter। যা কিনা অনেক বেশি সূক্ষ্ম।
  • অন্যদিকে Multimode অপটিক্যাল ফাইবারে ব্যবহৃত হয় ইনফ্রারেড় আলোক রশ্মি। যার তরঙ্গ দৈর্য্য হয় 850- 13,00 ন্যানোমিটার।
  • এই ফাইবার এর কেন্দ্র পথের ব্যাস ছিল 62 micron। এর ভিওর LED এর সাহায্যে ইনফ্রারেড় আলোক রশ্মি পাঠানো হয়।
  • এতো ছিলো ITU এর মান অনুসারে অটিক্যাল ফাইবার এর প্রকার ভেদ। এছাড়াও বিভিন্ন সংস্থা থেকেও আরো বিভিন্ন মান প্রকাশ করা হয়।
  • Gigbyte Ethernet,,,,FDDI,,,,HIPPI,,,SDH.SONET..ইত্যাদি।

অপটিক্যাল ফাইবার এর ব্যবহার হয়:

১.ইন্টারনেট এর জন্য।

২. ক্যাবল ডিশ এর জন্য।

৩. শেয়ারিং এর জন্য।

৪. মেডিক্যাল গ্যজেটে।

৫. মিলিটারি কমিউনিকেশন এর জন্য।

  • অপটিক্যাল ফাইবার এর বেশি ব্যবহার হয় ,ইন্টারনেট কিমিউনিকেশন এর জন্য।
  • লোকাল ডিশ অপারেটর তাদের ডিশ কানেকশন মূলত RJ-45 Cable এর সাহায্য দিয়ে থাকে।
  • কিন্তু দূর-দূরান্তে ডিশ এর লাইন নেওয়ার জন্য Optical fiber cable এর ব্যবহার করে থাকে। High quality video এর জন্য এর ব্যবহার হয়ে থাকে।’
  • শেয়ারিং কানেকশন এর জন্য এর ব্যবহার হয়ে ,থাকে কারন এই ক্যবল এর ট্রান্সমিট ‍স্পিড অনেক বেশি হয়ে থাকে।
  • এর ব্যবহার শুধু কমিউনিকেশন এর জন্য ব্যবহার হয় না। এর ব্যবহার মেডিক্যাল গ্যজেটে ও বহু বছর হতে হয়ে আসছে।
  • মিলিটারি এর কমিউনিকেশন এর জন্য এর ব্যবহার হয়ে থাকে। গোপনীয় সার্ভার কন্ট্রোল করার জন্য। ইত্যাদি কাজে এই ক্যাবল এর ব্যবহার হয়।
  •  আজ ইন্টারনেট এতো ফার্স্ট হওয়ার পিছনে, যে প্রযুক্তির সব থেকে বড় হাত আছে, সেটি হলো অপটিক্যাল ফাইবার প্রযুক্তি।
  • এর কারনেই আমার এতো দ্রুত ,পৃথিবীর যে কোন স্থানের ডাটা সহজেই এক্সেস করতে পারি। অথচ আমার বুঝতেই পারি না।

আরো পরুনঃ-

আজকে এই পযন্ত,সকলেই ভালো থাকবেন,আরো নতুন কিছু জানতে চাইলে আমাকে কমেন্ট করবেন বলবেন? আর এতক্ষন ধরে আমার পোষ্ট পরার জন্য আপনাদের কে জানাই লাল গোলাপের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.