মোবাইল দিয়ে কিভাবে ইনকাম করা যায়?

আজকে আপনারা যে সব বিষয়ে জানতে পারবেন-

  • আউটসোর্সিং কি?
  • আউটসোর্সিং সুবিধা কি?
  • কি কি কাজ আউটসোর্সিং করা যায়?
  • আউটসোর্সিং কিভাবে শিখব?
  • আউটসোর্সিং এর ওয়েবসাইট কি?
  • কিভাবে আউটসোর্সিং থেকে আয় করবেন?

আউটসোর্সিং কি?

অনলাইনে আয় করার বিষয়কে কেন্দ্র করে আউটসোর্সিং নিয়ে আমাদের দেশের মানুষের মধ্যে অনেক ধরনের কৌতুহল রয়েছে। আমাদের অনেকের ধারনা অনলাইন থেকে আয় করার জন্য আউটসোর্সিং শিখা প্রয়োজন হয়! আবার অধিকাংশ মানুষ আউটসোর্সিং বলতে শুধুমাত্র ইন্টারনেট থেকে আয় করাকে বুঝে। আবার এমন কিছু মানুষ আছে যারা মনেকরে নিজের মেইন কাজের বাহিরে অনলাইন হতে আরো কিছু অতিরিক্ত টাকা আয় করে নেওয়াকে আউটসোর্সি বলে।

অর্থাৎ মেইন ইনকাম সোর্সের বাইরে আরেকটি ইনকাম করাকে আউটসোর্সিং হিসেবে ধরে নেয়!আউটসোর্সিং বিষয়টাকে সরাসরি সংজ্ঞায়িত না করে আমি একটি উদাহরনের মাধ্যমে আউটসোর্সিং সম্পর্কে আপনাদের পরিষ্কার ধারনা দেওয়ার চেষ্টা করছি। উদহারন পড়ার পর আউটসোর্সিং কি সেটা আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন।

এক কথায় আউটসোর্সিং বলতে নিজের সোর্সের বাহিরে অন্যকোন সোর্স হতে কোন ব্যক্তির সাথে কন্টাকের মাধ্যমে কোনো কাজ করিয়ে নেওয়াকে আউটসোর্সিং বলে। অন্যভাবে বলা যায় যে, ইন্টারনেটের মাধ্যমে যে কোন প্রতিষ্ঠানের কাজ ফ্রিল্যান্সারদের দ্বারা করিয়ে নেয়ার নাম হচ্ছে আউটসোর্সিং। আর যারা এই আউটসোর্সিং এর কাজ করে তাদেরকে বলা হয় ফ্রিল্যান্সার।

তবে আউটসোর্সিং এর কাজ শুধুমাত্র ইন্টারনেট ও ফ্রিল্যান্সরদের দিয়ে করানো হয়, এমনটা কিন্তু নয়। অনলাইন ছাড়া অফলাইনের মাধ্যমে কোন ব্যক্তিকে কোম্পানিতে নিয়োগ না দিয়ে কন্টাকের মাধ্যমে কোম্পানির কোন কাজ করিয়ে নেওয়াটাও আউটসোর্সিং আওতায় পড়ে।

 

আউটসোর্সিং সুবিধা কি?

আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে বায়ারগণ অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক দামে এমনকি কখনও কখনও স্বল্প পারিশ্রমিকে কাজ করিয়ে নিতে পারেন যা হয়তো নিয়মিত কর্মীদের মাধ্যমে করালে অনেক বেশি খরচ পড়তো।

বায়ার গণ টাইম জোন এর সুবিধাকে কাজে লাগাতে পারেন। বিশ্বের এক প্রান্তে যখন রাত অন্য প্রান্তে তখন দিন ফলে আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে কাজ করালে বায়ারগণ যখন ঘুমে বিভোর তখন অন্য প্রান্তে তার কাজটি দ্রুত গতিতে এগিয়ে যেতে থাকে। এতে সময়ের সদ্বব্যবহার করা যায়। বায়ারগণ হয়তো সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখেন তার কাজ সম্পন্ন হয়ে গেছে।

  • ফ্রিল্যান্সার ঘরে বসেই কাজ করতে পারেন। ফলে অনেকে পূর্ণকালীন চাকরির পাশাপাশি অবসরে খন্ডকালীন চাকরি হিসেবে আউটসোর্সিং এ যুক্ত হতে পারেন।
  • বিশ্বের যে কোনো প্রান্ত থেকে কাজ করিয়ে আনা যায় বলে প্রচলিত কর্মীর কোনো প্রয়োজন পড়ে না।
  • বায়ার গণ খন্ডকালীন রূপে কাউকে কাজের জন্য নিয়োগ দিতে পারেন।
  • আউটসোর্সিং এর ক্ষেত্রে কর্মদাতাকে কোনো অফিস নেবার প্রয়োজন পড়ে না। ফলে অবকাঠামো বিভিন্ন সুবিধা যেমন, কর্মীর বসার সংস্থান, উন্নত মানের কম্পিউটার ও প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি স্থাপনের কোনো প্রয়োজন পড়ে না। এতে খরচ বেচে যায়।
  • আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে ফ্রিল্যান্সার গণ নিজের আর্থিক উন্নতি ঘটাতে পারেন। এর মাধ্যমে যথেষ্ট পরিমাণে উপার্জন এর সুযোগ রয়েছে
  • আউটসোর্সিং এর মাধ্যমে দেশের শিক্ষিত বেকার জনগোষ্ঠীর জন্য কর্ম সংস্থান করা সম্ভব।
  • তীব্র প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে কাজ করিয়ে আনা হয় বলে কাজের মান উন্নত হয়। ফ্রিল্যান্সার পরবর্তী কাজ পাবার আশায় প্রতিটি কাজের নিজস্ব দক্ষতার ছাপ রাখার চেষ্টা করেন।

কি কি কাজ আউটসোর্সিং করা যায়?

আউটসোর্সিং এর জন্য বিভিন্ন কোর্স আছে। আপনি চাইলে যেকোন কোর্স সম্পন্ন করে আউটসোর্সিং শুরু করে দিতে পারেন। কোর্সগুলো হলো:

  • এসইও (সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন)
  • ওয়েব ডিজাইন
  • অটোক্যাড
  • গ্রাফিক্স ডিজাইন
  • ডিজিটাল মার্কেটিং
  • এনিমেশন ডিজাইন
  • ডাটা টাইপিং ইত্যাদি।

বাংলাদেশ থেকে মোটামুটি এসব আউটসোর্সিং এর কাজ ই করা হয়। তাছাড়া আপনি চাইলে ব্লগিং করেও অর্থ উপার্জন করতে পারেন যদি আপনার লেখালেখির অভিজ্ঞতা থাকে।

এগুলো আপনার কাজে লাগতে পারে –

আউটসোর্সিং কিভাবে শিখব?

আউটসোর্সিং কিভাবে শিখবেন এটি প্রায় সবার কমন প্রশ্ন। এর উত্তর হচ্ছে, আউটসোর্সিং শেখার তিনটি উপায় আছে। আপনি তিনটি উপায়ের যেকোন একটি উপায় অবলম্বন করে আউটসোর্সিং এর কাজ শিখতে পারেন। তিনটি উপায় হলো:

  • কোন প্রতিষ্ঠানে আউটসোর্সিং কোর্স সম্পন্ন করা
  • ইউটিউব ভিডিও টিউটোরিয়াল দেখে শেখা
  • ব্যাক্তিগতভাবে কারও কাছে আউটসোর্সিং কাজ শেখা

আউটসোর্সিং এর ওয়েবসাইট কি?

আউটসোর্সিং কাজ করার বেশ কিছু ওয়েবসাইট আছে। এসব ওয়েবসাইটে প্রতিদিন হাজার হাজার ফ্রীল্যান্সাররা কাজ করতে আসেন। আবার যারা প্রতিষ্ঠানের মালিক তারাও ফ্রীল্যান্সারদের খোজতে এসব ওয়েবসাইটে আসেন। বর্তমান বিশ্বে আউটসোর্সিং এর কাজের জন্য জনপ্রিয় ওয়েবসাইটগুলো হলো:

  • ফ্রীল্যান্সার
  • আপওয়ার্ক
  • পিপল-পার-আওয়ার
  • এনভাটো
  • ফাইভার

এগুলো ১০০% পরতে হবে

আরও বহুসংখ্যক ওয়েবসাইট আছে যেখানে আপনি আউটসোর্সিং এর কাজ করতে পারবেন তবে অবশ্যই মনে রাখতে হবে, সকল ওয়েবসাইট পেমেন্টের গ্যারান্টি দেয় না। যেসকল ওয়েবসাইট অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য সেগুলোই উপরে দেওয়া আছে।

কিভাবে আউটসোর্সিং থেকে আয় করবেন?

কিভাবে আউটসোর্সিং থেকে আয় করবেন?আরো পরুনঃ-

By Taher

আসসালামু-আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি-ওয়াবারাকাতুহু ।আমি মোঃ আবু তাহের ইসলাম (আমান)। আমি গয়াবাড়ি স্কুল এন্ড কলেজ পড়াশোনা করি । আমি এসএসসি পরীক্ষার্থী 2022 সাল । আমার সাবজেক্ট একাউন্টিং। আমি ভবিষ্যতে যেকোনো একটি ভালো প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে আমার জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী । আমার পুরো জীবনটা হচ্ছে, একটা সরল অংকের মত । যতই দিন যাচ্ছে ততই আমি সমাধানের দিকে যাচ্ছি ইনশাআল্লাহ......নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই https://dailyinfo71.com/ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি। ধন্যবাদ সবাইকে

Leave a Reply

Your email address will not be published.