এসইও কি, এসইও কত প্রকার, কিভাবে এসইও করতে হয়?

এসইও কি?এসইও কত প্রকার ও কি কি? কিভাবে এসইও করতে হয়? আপনি যদি এইসব প্রশ্নের উত্তরগুলো খুজতে থাকেন তাহলে বলবো আপনি সঠিক জায়গা চলে এসেছেন।এই পোস্টে এসইও নিয়ে A-Z আলোচনা করা হবে। মনোযোগ সহকারে পোস্ট টি পড়ুন আশা করি এসইও নিয়ে সব প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন ইনশাআল্লাহ।

কাজের ধরন অনুযায়ী সাধারণত (SEO) এসইও তিন ধরনের হয়ে থাকে

  • (Whit Hat SEO)হোয়াইট হ্যাট এসইও
  • (Black Hat SEO) ব্ল্যাক হ্যাট এসইও
  • (Gray Hat SEO) গ্রে হ্যাট এসইও

(Whit Hat SEO)হোয়াইট হ্যাট এসইও

হোয়াইট হ্যাট এসইও হোয়াইট হ্যাট এসইও হচ্ছে, যে পদ্ধতির মাধ্যমে কোন ধরনের স্পামিং না করে অর্থাৎ লিগ্যাল ভাবে কাজ করে, সার্চ ইঞ্জিনে ওয়েবসাইট রেঙ্ক করানো পদ্ধতি হচ্ছে, হোয়াইট হ্যাট এসইও। হোয়াট হ্যাট এসইও করলে ওয়েবসাইটের কোন রিক্স থাকেনা সেই কারণে, হোয়াইট হ্যাট এসইও সকল সার্চ ইঞ্জিন সাপোর্ট করে।

হোয়াইট হ্যাট এসইওকে কাজের ধরন অনুযায়ী দুই ভাগে ভাগ করা হয়।

ইউটিউব থেকে আয় করবেন যেভাবে?

  • (PAID SEO) পেইড এসইও
  • (ORGANIC SEO) অর্গানিক এসইও

(PAID SEO) পেইড এসইও

পেইড এসইও করার জন্য গুগলকে টাকা দেওয়া হয়। (PAID SEO) করে গুগল থেকে আপনার ওয়েবসাইটটিতে ভিজিটর নিয়ে আসতে পারবেন এবং যে কয় একজন ভিজিটর আপনার সাইটে প্রবেশ করবে, (paid seo) এর মাধ্যমে গুগল থেকে আপনার ওয়েবসাইটে যাওয়ার জন্য প্রতি ক্লিকে, গুগলকে আপনি টাকা পে করতে হবে। পেইড এসইও করলে গুগলের প্রথম পেজে সবার উপরে আপনার ওয়েবসাইট নিয়ে যেতে পারবেন এবং প্রচুর পরিমানে ভিজিটর পাবেন।

(ORGANIC SEO) অর্গানিক এসইও

(ORGANIC SEO) অর্গানিক এসইও করার জন্য গুগল কে কোন ধরনের টাকা দিতে হবে না। তাই অন্যভাবে এটিকে অর্গানিক এসইও বলা হয়।

SEO কি? SEO কেন গুরুত্বপূর্ণ? এসইও কিভাবে শিখবো?

আপনার নলেজকে কাজে লাগিয়ে একটু পরিশ্রম করে, আপনার ওয়েবসাইট (SEO)এসইও করার জন্য, এমন কিছু টেকনিক আছে, যে টেকনিক গুলো ব্যবহার করে ওয়েবসাইটে কিছু জিনিস আছে, যেগুলো চেঞ্জ করে গুগল সার্চ ইঞ্জিনকে বুঝাতে হবে, আপনার ওয়েবসাইটের কিওয়ার্ড অনুযায়ী তথ্য আছে, তাহলে অর্গানিক (SEO)এসইও এর মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটটি গুগলের(google) প্রথম পেজে আনতে পারবেন।

অর্গানিক (SEO)এসইও দুই ধরনের।ব্লগ সাইট বানিয়ে প্রতিমাসে অনলাইনে ইনকাম করুন ১০০০ ডলার

  • (ONPAGE SEO)অনপেজ এসইও
  • (OFFPAGE SEO)অফ পেজ এসইও।

অনপেজ এসইও(Onpage Seo) হচ্ছে ওয়েবসাইট এর ভিতরে এমন কিছু কাজ করা যে, কাজগুলো ঠিকঠাকমতো করার ফলে,

বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিনে ওয়েবসাইটটি র‍্যঙ্ক করে বা সার্চ ইঞ্জিনে প্রথম পেজে আনার উদ্দেশ্যেই হল (ONPAGE SEO)অন পেজ এসইও।আপনার ওয়েবসাইটটি (ONPAGE SEO)অন পেজ এসইও ভালোমতো করতে পারলে আপনার ওয়েবসাইটের নাম লিখে,

সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ দিলে, খুব সহজে সার্চ ইঞ্জিন খুঁজে পাবে।

অনপেজ এসইও দুই প্রকার

  • (Technical SEO) টেকনিক্যাল এসইও
  • (Page Optimization) পেজ অপটিমাইজেশন

একটি ওয়েবসাইট (ONPAGE SEO) অনপেজ এসইও করতে হলে যে কাজগুলো করতে হয়া তা নিচে দেওয়া হল:

  • Domain.
  • Domain name Optimization, Domain address.
  • Title,keyword,meta description Optimization.
  • Keyword research Optimization.
  • google webmaster tools verify.
  • Sitemap index.
  • Do follow, No follow
  • Website analysis.
  • Increase website speed.
  • content optimization.
  • HTML tag H1 H2 and H3 Optimization.

(OFFPAGE SEO)অফ পেজ এসইও।

(OFFPAGE SEO)অফ পেজ এসইও, অনেকে যারা তাদের ওয়েবসাইটগুলো গুগলের র‍্যঙ্ক করাতে পারে না,
আবার অনেকে তাদের নিজের ওয়েবসাইট থেকে আর্টিকেল এর লিংক কপি করে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া বা বিভিন্ন ওয়েবসাইটে URLসাবমিট করে বা লিংক বিল্ডিং করে, এটাই অফ পেজ এসইও।

(OFFPAGE SEO) অফ পেজ এসইও জন্য যে সকল কাজ গুলো করতে হয় তা নিচে দেওয়া হল:

  • Web 2.0.
  • Link Building.
  • Froum posting.
  • Article Submission.
  • Social Bookmarking.
  • Review Submission.
  • PDF Submission.
  • Video Submission.
  • Image Submission.
  • Directory Submission.
  • Guest Post.
  • Email marketing.

(Whit Hat SEO)হোয়াইট হ্যাট এসইও

সার্চ ইন্জিনের গাইডলাইন বা নীতিমালা ভঙ্গ না করে যদি SEO করেন তাহলে এ ধরনের অপটিমাইজেশনকে বলে হোয়াইট হ্যাট এসইও।এসব গাইডলাইন বা নীতিমালার মধ্যে সবচেয়ে গুরত্বপূর্ন নীতিটি হচ্ছে ওয়েবসাইট মানুষের জন্য তৈরী করুন যা উপকারী,সার্চ ইন্জিনের জন্য নয়।অন্যান্য নীতিমালার মধ্যে আছে ব্যাকলিংক,লিংক পপুলারিটি,কিওয়ার্ড গবেষনা,লিংক বিল্ডিং ইত্যাদি।হোয়াইট হ্যাট এসইও (White hat SEO) কে এথিকাল এসইও (Ethical SEO) বলা যায়।

(Black Hat SEO) ব্ল্যাক হ্যাট এসইও

ব্ল্যাক হ্যাট এসইও (Black Hat SEO) সার্চ ইঞ্জিনগুলির গাইডলাইনগুলোকে কাজে লাগায় এবং পেইজ এর র‌্যাঙ্কিং বাড়ানোর জন্য নেগেটিভ পদ্ধতিগুলি ব্যবহার করে। এটি আনএথিকাল এসইও হিসাবে বিবেচিত হয়। লিঙ্ক স্প্যাম, কীওয়ার্ড স্টাফিং, ক্লোকিং, হিডেন লিঙ্ক এবং টেক্সট কয়েকটি ব্ল্যাক হ্যাট এসইও এর কৌশল।

ব্ল্যাক হ্যাট এসইও এর অধীনে ব্যবহৃত কৌশলগুলি সার্চ ইঞ্জিনগুলির নির্দেশিকাগুলির পরিপন্থী এবং তাই এগুলো নিষিদ্ধ বা কালো তালিকাভুক্ত। ব্ল্যাক হ্যাট এসইও ব্যবহার করে ওয়েবসাইটগুলি র‌্যাঙ্কিংয়ে দ্রুত বৃদ্ধি লাভ করে তবে এই পরিবর্তনটি অনাকাঙ্ক্ষিত ।

(Gray Hat SEO) গ্রে হ্যাট এসইও

গ্রে হ্যাট এসইও (Grey Hat SEO) হ’ল এসইও যা ঝুঁকি নেয় অর্থাত্ ব্ল্যাক হ্যাট এসইওর সীমানা নির্ধারণ করতে পারে এমন কৌশল ব্যবহার করে। গ্রে হ্যাট এসইও কৌশলগুলির মধ্যে কিছু ক্ষেত্রে বৈধ এবং আবার কিছু অবৈধ। ডোরওয়ে পেইজএস, গেটওয়ে পেইজএস, ডুপলিকেট কন্টেন্ট এগুলো হ’ল গ্রে হ্যাট এসইও।

শেষ কথাঃ-
পোস্ট এখনো শেষ হয়নি,পরবর্তী আপডেট আশা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন,এসইওর আরো অনেক কিছু বাকি আছে। এখানে কিছু না বুঝতে পারলে কমেন্ট করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.