নিজেকে ভালো রাখার উপায়-2021

নিজেকে ভালো রাখার উপায়-2021

জীবনের অনেকটা সময় অন্যের সাথে সম্পর্কের ভালো -মন্দ নিয়ে ব্যয় হয়। কখনও কখনও একটি সম্পর্ক ভেঙে দিতে অনেক পরিশ্রম লাগে এবং কখনও কখনও এটি একটি সম্পর্ক তৈরি করতে অনেক প্রচেষ্টা লাগে, কিন্তু এই পুরো প্রক্রিয়ায় প্রচুর শক্তি ক্ষয় হয়। আর এভাবে নিজের সাথে সম্পর্ক যত খারাপ হবে ততই হতাশা, মনের বিষণ্ণতা।

আপনি ভাল বা খারাপ, অন্য কেউ এর জন্য দায়ী নয়, আপনি প্রথম এবং সর্বাগ্রে দায়ী। তাই সব পরিস্থিতিতে আপনাকে নিজের সাথে নিজের সম্পর্ক রাখতে হবে। আপনাকে প্রতিদিন নিজের একটু যত্ন নিতে হবে, যাতে শরীর এবং মন দুটোই ভালো থাকে। নিচে such টি টিপস দেওয়া হল-

  • ব্যায়াম দিয়ে দিন শুরু করা উচিত। সকালে ভারী ব্যায়ামের প্রয়োজন নেই। হালকা ফ্রিহ্যান্ড, সামান্য জগিং বা মর্নিং ওয়াক। আর কিছু না হলে, সকালে উঠুন, কমপক্ষে আধা ঘণ্টা বারান্দায় বা খোলা আকাশের নিচে কাটান। মন সতেজ থাকতে বাধ্য। এবং এই তাজা মেজাজটি দিন শুরু করার জন্য খুব প্রয়োজনীয়।

  • মানবদেহের সবচেয়ে মৌলিক চাহিদা হলো খাদ্য। অপরিকল্পিত খাদ্যাভ্যাস বিষণ্ণতার পাশাপাশি হতাশার কারণ হতে পারে। প্রথমে সকালে উঠে এমন কিছু খান যা শরীরের জন্য ভালো। দিনের অন্যান্য খাবারের মধ্যে আপনার অন্তত একটি আরামদায়ক খাবার থাকা দরকার।

  •  বাড়িতে থাকুন বা বাইরে যান, আপনার পছন্দ মতো পোশাক পরুন, আপনার পছন্দ মতো পোশাক পরুন। যদি এটি মেকআপ এবং জাঙ্ক গয়না হয়, তাহলে তাই হোক। আবার, যদি এটি একটি তাজা টি-শার্ট এবং হাফপ্যান্ট হয়, তাহলে তাই হোক। বাসি কাপড় ছেড়ে নতুন কাপড় পরার নিয়ম শুধু সংস্কার বা শিষ্টাচার নয়। এর একটি ভালো দিকও আছে। এটি করার জন্য উপযুক্ত জিনিস, এবং এটি সেখানে শেষ হওয়া উচিত।

  •  দিনে একবার ধ্যান করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রথমে মনোনিবেশ করা কঠিন। একটু একটু করে সময় বাড়ান। অধৈর্য হবেন না, কিছুক্ষণ চুপচাপ বসে থাকুন, ভবিষ্যতের পরিকল্পনা করুন।

  • দিনের বেলা কয়েক ঘন্টা মোবাইল ফোন থেকে দূরে থাকুন, বিশেষ করে রাতে ঘুমানোর আগে। এই সময় হয় বই পড়ার, গান শোনার বা সিনেমা দেখার।

  • প্রতিদিন আমাদের অপ্রীতিকর কিছু মোকাবেলা করতে হয়। এটি অন্য সম্পর্কের টান, আর্থিক সমস্যা বা পেশাদার টান হতে পারে। যখনই এরকম কিছু ঘটে, আবেগপ্রবণ মানুষ চরম বিরক্ত হয়। সব সমস্যার সমাধান সব সময় হয় না। কিন্তু আপনি যদি আপনার মনের যত্ন না নেন, তাহলে এই ধরনের পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসা কঠিন। এই সময়ে, আপনার নিজের কাউন্সেলিং করুন, গান শুনুন বা হাঁটুন।

  • জ্ঞানের পরিধি যত বেশি, আত্মবিশ্বাস তত বেশি। তাই নিজের যত্ন নেওয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হল বই, ম্যাগাজিন, গুগল সার্চে প্রতিদিন নতুন কিছু শেখা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.