পিরিয়ড সম্পর্কে লজ্জা-নিষিদ্ধ নয়, সচেতনতা প্রয়োজন

পিরিয়ড সম্পর্কে লজ্জা-নিষিদ্ধ নয়, সচেতনতা প্রয়োজনপিরিয়ড প্রকৃতি থেকে নারীদের জন্য একটি উপহার। মহিলাদের এই উপহার সম্পর্কে স্বাধীনভাবে কথা বলার অধিকার আছে।

আমাদের দেশে মহিলাদের জন্য পিরিয়ড লজ্জার বিষয় হিসেবে বিবেচিত হয়। এজন্য পরিবারের বড়রা মেয়েদের পিরিয়ড নিয়ে তেমন কিছু বলেন না।
২ মে বিশ্ব মাসিক দিবস হিসেবে পালিত হয়। একটি জরিপ অনুসারে, বিশ্বের মহিলাদের মধ্যে মৃত্যুর পঞ্চম সবচেয়ে সাধারণ কারণ হল পিরিয়ডের সময় স্বাস্থ্যকর স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার না করা। এদিকে, বাংলাদেশে মাত্র ২০ শতাংশ নারী স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করে।

11-12 বছরের একটি মেয়ের জন্য, পিরিয়ডের প্রথম অভিজ্ঞতা ভয়ঙ্কর এবং বিব্রতকর। অজ্ঞানতার কারণে পিরিয়ড চলাকালীন, অনেক কিশোর বাড়ির কাউকে না জানিয়ে ভয় পায় এবং বিব্রত হয়। যা তার মানসিক এবং শারীরিক স্বাস্থ্য সমস্যার কারণ হতে পারে।

মেয়ে শিশুকে পিরিয়ড সম্পর্কে জানতে হবে এবং বয়সের পর মোটামুটি প্রস্তুত থাকতে হবে। তাই লজ্জা বা নিষিদ্ধ না হয়ে পিরিয়ডের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে শিশুর সাথে সরাসরি কথা বলা গুরুত্বপূর্ণ। যত তাড়াতাড়ি শিশু বয়berসন্ধিতে পৌঁছায়, এই বিষয়ে কথা বলা শুরু করুন শিশুকে শারীরিক পরিবর্তন সম্পর্কে একটি বৈজ্ঞানিকভাবে পরিষ্কার ধারণা দিন, কেন পিরিয়ড হয়

টিভিতে স্যানিটারি ন্যাপকিনের বিজ্ঞাপন দেখার পর যদি আপনার পাঁচ বছরের ছোট্ট শিশুটি জানতে চায়, তাহলে তাকে না বুঝিয়ে তাকে খুব সাধারণভাবে ব্যাখ্যা করুন। এভাবে তিনি নারীদের প্রতি শ্রদ্ধার সাথে বেড়ে উঠবেন এবং খুব বেশি আগ্রহ দেখাবেন না।

কিশোরী মেয়ের পাশে থাকুন, তাকে বুঝিয়ে দিন যে পিরিয়ড কোন রোগ নয়, এটি একটি মহিলার জীবনের একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। পিরিয়ড চলাকালীন আপনার শিশু সুস্থ এবং পরিষ্কার আছে তা নিশ্চিত করুন। সংক্রমণ এড়াতে, স্বাস্থ্যকর স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করুন, কাপড়, তুলা বা টিস্যু নয়।

পিরিয়ডের সময় কিশোর শরীরের বিভিন্ন অংশে বমি বমি ভাব, ব্যথা এবং দুর্বলতা অনুভব করে। উদ্বেগ, ভয় এবং মানসিক অবসাদ থেকে মুক্তি পেতে এই সময়ে সঠিক খাবারের যত্ন নেওয়া উচিত। এ সময় টোকাদাই, মাছ, ছোলা, আদার রস, রসুন, দুধ, আঙ্গুর, কলা, বাদাম, ডার্ক চকোলেট, সবুজ শাকসবজি এবং প্রচুর পরিমাণে খাদ্য তালিকায় রাখুন।

By Taher

আসসালামু-আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি-ওয়াবারাকাতুহু ।আমি মোঃ আবু তাহের ইসলাম (আমান)। আমি গয়াবাড়ি স্কুল এন্ড কলেজ পড়াশোনা করি । আমি এসএসসি পরীক্ষার্থী 2022 সাল । আমার সাবজেক্ট একাউন্টিং। আমি ভবিষ্যতে যেকোনো একটি ভালো প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে আমার জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী । আমার পুরো জীবনটা হচ্ছে, একটা সরল অংকের মত । যতই দিন যাচ্ছে ততই আমি সমাধানের দিকে যাচ্ছি ইনশাআল্লাহ......নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই https://dailyinfo71.com/ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি। ধন্যবাদ সবাইকে

Leave a Reply

Your email address will not be published.