ফেসিয়াল করার আগে এই বিষয়গুলি অবশ্যই মাথায় রাখুন না হলে তক নষ্ট হবে ?

ফেসিয়াল করার আগে এই বিষয়গুলি অবশ্যই মাথায় রাখুন না হলে তক নষ্ট হবে ?

ত্বকের যত্ন নিতে ফেসিয়াল আজকের জীবনের অন্যতম অঙ্গ। ফেসিয়াল নানাভাবে ত্বকের উপকার করে, মুখ থেকে ময়লা দূর করে এবং ত্বকে রক্ত ​​সঞ্চালনও বাড়ায়। ফলে ত্বক হয়ে ওঠে নরম, মসৃণ এবং চকচকে।

তবে ফেসিয়াল করার আগে কিছু বিষয় অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে, না হলে উপকারের বদলে ত্বকের ক্ষতি হতে পারে। তারপর জেনে নিন ফেসিয়াল করার আগে কি করতে হবে।

1) দুটি মুখের মধ্যে পার্থক্য
সাধারণত দুই ধরনের ফেসিয়াল হয়, একটি বেসিক এবং অন্যটি অ্যাডভান্সড। আপনি যদি অ্যাডভান্সড ফেসিয়াল করেন, কমপক্ষে ১৫ দিনের ব্যবধান রাখুন। এবং যদি আপনি বেসিক ফেসিয়াল করেন তবে কমপক্ষে এক সপ্তাহের ব্যবধান রাখুন। কোনো ফেসিয়াল না করাই ভালো।

2) ত্বক অনুযায়ী ফেসিয়াল
আমাদের প্রত্যেকের ত্বকের ধরন আলাদা। কিছু শুকনো, কিছু তৈলাক্ত। কিছু মানুষের আবার খুব সংবেদনশীল ত্বক থাকে। তাই ত্বকের ধরন অনুযায়ী ফেসিয়াল করা উচিত। ত্বকের ধরন অনুযায়ী ফেসিয়াল না করলে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা (এলার্জি, ব্রণ, ফুসকুড়ি) হতে পারে।

3) ফেসিয়াল করার আগে মোম বা শেভ করবেন না
ওয়াক্সিং বা শেভিং ত্বককে কিছুটা সংবেদনশীল করে তোলে। এবং, যেহেতু মুখের সময় ত্বক ম্যাসাজ করা হয়, তাই মুখের আগে ওয়াক্সিং বা শেভিং করলে ত্বকের সমস্যা হতে পারে। আবার, যাদের ইতিমধ্যে সংবেদনশীল ত্বক রয়েছে, তাদের ত্বকে দাগ বা লালচে ভাব থাকতে পারে।

4) মুখ পরিষ্কার মুখ
ফেসিয়াল করার আগে মুখ পরিষ্কার রাখুন। কোন মেকআপ, ফাউন্ডেশন, পাউডার বা ক্রিম লাগানো উচিত নয়। মুখের মেকআপ ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। ফেসিয়াল করার আগে অবশ্যই ক্লিনজার বা ফেস ওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন। যাতে ফেসিয়াল করার সময় ফেসিয়ালের উপকারিতা সরাসরি ত্বকের গভীরতায় পৌঁছায়।

5) ফেসিয়াল করার আগে আইল্যাশ এক্সটেনশন করবেন না
ফেসিয়াল করার আগে কখনোই আইল্যাশ এক্সটেনশন করবেন না। চোখের দোররা এক্সটেনশানগুলি এক ধরণের আঠার ব্যবহার করে এবং কমপক্ষে 48 ঘন্টার জন্য ঘষা, লোশন বা বাষ্প করা যায় না। তাহলে সমস্যা বাড়তে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.