বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন কবে? কোথায় জন্মগ্রহণ করেন? জীবনী।

রোহার তিন ভাইবোন আছে। বড় ভাই স্নাতক শেষ করে চাকরির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ছোট ভাই হাইস্কুল পাশ করে এখন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দেবে। সবার ছোট রোহা। সে সপ্তম শ্রেণীতে পড়ে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন কবে? কোথায় জন্মগ্রহণ করেন? জীবনী।

ছোট বলে রোহা খুব স্নেহময়ী। তার ইচ্ছাশক্তিও অদ্ভুত। সবাই যখন একইভাবে কিছু দেখে, তখন রোহা তার ভিতরে অন্য কিছু খুঁজে পায়। যেমন একটি অফিসের আবেদনপত্র দেখার পরও রোহা এ বিষয়ে কিছু করেননি!

স্পষ্ট করে বলতে গেলে, রোহরের বাবা একটি প্রাইভেট কোম্পানি থেকে ঋণের আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে গিয়েছিলেন। সঙ্গে গেল রোহাও। বাবা ফর্ম নেওয়ার সাথে সাথে রোহর লক্ষ্য করলেন যে নাম, বাবার নাম, মায়ের নাম এবং অন্যান্য পরিচয় জানার জন্য প্রতিটি লাইনের শেষে একটি তারকাচিহ্ন রয়েছে।

কিন্তু রোহা এসব জায়গায় কোলন (:) ব্যবহার করতে স্কুলের শিক্ষকদের কাছ থেকে শিখেছে। প্রথমে বাবা, তারপর সংস্থার কর্তাব্যক্তিদের কানে পৌঁছায়। সবাই হাসতে লাগলো। বিষয়টি তাদের কাছে কিছু মনে হয়নি। রোহা গো ধরলো। সেটা ঠিক করতে হবে। এক পর্যায়ে তারা জোর দিয়ে বলল, “ঠিক আছে, আমরা দেখব।”

বেশ কিছু দিন পর রোহর বাবা আবার অফিসে গেলেন। কথোপকথনের একপর্যায়ে একজন কর্মকর্তা তাকে বলেন, আমরা কিন্তু বিষয়টি ঠিক করে ফেলেছি। তিনি প্রথমে বুঝতে পারেননি। পরে ওই কর্মকর্তা একটি ফরম হাতে নিয়ে বলেন, স্বর্গের জায়গায় কোলন বসানো হয়েছে। এটা দেখে রোহর বাবার আনন্দ থেমে গেল। বাড়ি ফিরে রোহাকে ডেকে চুমু খেলেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে দেশব্যাপী নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। বিদেশেও থাকবে নানা কর্মসূচি। প্রতিদিন পত্র-পত্রিকায় বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে টেলিভিশন অনুষ্ঠান প্রচার হচ্ছে। নতুন অনেক কিছু শিখছে রোহা।

একদিন রুহা টেবিলে রাখা তার বড় ভাইয়ের ‘সাধারণ জ্ঞানের’ বইয়ের দিকে তাকিয়ে ছিল। সেখানে তিনি বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ইংরেজি ও বাংলা জন্মতারিখ দেখেন। এর কিছুক্ষণ পরেই তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম ও মৃত্যুর ইংরেজি তারিখ দেখেন। বঙ্গবন্ধুর জন্ম ও মৃত্যুর বাংলা তারিখ খুঁজতে থাকে রোহা। কিন্তু পায়নি।

রোহা তার বাবা ও ভাইদের জিজ্ঞেস করল। তারা বঙ্গবন্ধুর বাঙালি জন্ম তারিখ বলতে পারেনি। ছোট ভাই বললেন, আমরা 16 মার্চ 1920 জানি। বাংলায় জন্মতারিখ জানার দরকার কী? কথাটা শুনে রোহার মন খারাপ হয়ে গেল।

পরদিন রোহা স্কুলের শিক্ষকদের কাছে বিষয়টি জানতে চান। তারা কিছু বলতে পারেনি। তবে বিষয়টি তাদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে। তারা মনে করতেন, যে নেতা ভাষা আন্দোলনে অংশ নিয়েছিলেন, বাংলাদেশের নাম দিয়েছেন, জাতির পিতা, তার বাঙালির জন্ম-মৃত্যুর তারিখ আমাদের সবার জানা উচিত। কিন্তু কেউ জানে না এটা কি!

একদিন রোহর বড় ভাই হঠাৎ অন্য বইয়ে খুঁজে পেলেন বঙ্গবন্ধুর জন্ম তারিখ। তিনি সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি রোহাকে জানান। রোহা জানতে পারে, ১৩২৮ বাংলার ৩ চৈত্র জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ২৯ শ্রাবণ ১৩৮২ খ্রিস্টাব্দে মৃত্যুবরণ করেন।

রোহা হিসাব করে দেখেছে, ১০০ বছর পরও বঙ্গবন্ধুর বাংলা জন্ম তারিখ ছিল ৩ চৈত্র ১৬ মার্চ। স্কুলে গিয়ে রোহা তার বান্ধবীদের বঙ্গবন্ধুর বাঙালি জন্ম তারিখ জানায়। এই নতুন জিনিস জেনে সবাই খুব খুশি হল। রোহর আগ্রহ দেখে শিক্ষকরাও খুশি।

By Taher

আসসালামু-আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি-ওয়াবারাকাতুহু ।আমি মোঃ আবু তাহের ইসলাম (আমান)। আমি গয়াবাড়ি স্কুল এন্ড কলেজ পড়াশোনা করি । আমি এসএসসি পরীক্ষার্থী 2022 সাল । আমার সাবজেক্ট একাউন্টিং। আমি ভবিষ্যতে যেকোনো একটি ভালো প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে আমার জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী । আমার পুরো জীবনটা হচ্ছে, একটা সরল অংকের মত । যতই দিন যাচ্ছে ততই আমি সমাধানের দিকে যাচ্ছি ইনশাআল্লাহ......নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই https://dailyinfo71.com/ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি। ধন্যবাদ সবাইকে

Leave a Reply

Your email address will not be published.