বাংলাদেশের সেরা দশর্ণীয় স্থান ।বাংলাদেশের সেরা দশর্ণীয় স্থানগুলোর নাম কি কি?

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভাল আছেন। তো বন্ধুরা অদ্ভুত নিয়োগের নতুন ইসোডে আপনাদের জানাই স্বাগতম। বাংলাদেশের সেরা ১৫ পর্যটনকেন্দ্র অপরূপ সৌন্দর্যের। এই দেশের প্রায় প্রতিটি জেলায় রয়েছে বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান। তো বন্ধুরা চলুন শুরু করা যাক।

কক্সবাজারঃ-
কক্সবাজার বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের অবস্থিত। বিশ্বসেরা সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত। বিশ্বের দীর্ঘতম প্রাকৃতিক সমুদ্র সৈকত ভ্রমন পিপাসুদের জন্য কক্সবাজার আদর্শ জায়গা। এছাড়া এখানে অনেক প্রাচীন স্থাপনা রয়েছে


থাকবেন কথায়ঃ
হোটেল দ্য কক্স টুডে: মোবাইল: ০১৭৫৫৫৯৮৪৪৯,,,,,,,,ওশান প্যারাডাইস হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট:মোবাইল: ০১৯৩৮৮৪৬৭৬১,,,,,,,,,,সার্ফ ক্লাব রিসোর্ট: যোগাযোগ: ০১৭৭৭৭৮৬২৩২,,,,,,,,,,হোটেল সী প্যালেস: মোবাইল: ০১৭১৪৬৫২২২৭,,,,,,,,,প্রাসাদ প্যারাডাইস:যোগাযোগ: ০১৫৫৬৩৪৭৭১১,,,,,,,,,হোটেল সী ক্রাউন:মোবাইল: ০১৮৩৩৩৩১৭০৩,,,,,,,,,,হোটেল সী ওয়ার্ল্ড: মোবাইল: ০১৯৩৮৮১৭৫০১,,,,,,,,,লং বিচ হোটেল: মোবাইল: ০১৭৫৫৬৬০০৫১,,,,,,,,,,,হোটেল সী কক্স:মোবাইল:০১৮৪০৪৭৭৭০৭,,,,,,,,,সীগালহোটেল: মোবাইল: ০১৭৬৬৬৬৬৫৩০,,,,,,,,,মোটেল লাবনী: মোবাইল: ০১৮১৫৪৬৯১১৩।


বাসে গেলেঃ
ঢাকা থেকে কক্সবাজার বাসে যেতে সময় লাগে প্রায় দশ থেকে বার ঘণ্টা, এসি/ননএসি দুই ধরনের বাস আছে। বাস ভেদে এসি/ননএসি ভাড়া ৮০০-১৫০০ টাকা। ঢাকা থেকে প্রতিদিনই অনেক বাস পাওয়া যায়।
যেমনঃ এস আলম ০১৮১৩-৩২৯৩৯৪,হানিফ ০১৭১৩৪০২৬৭১,সেন্টমার্টিন পরিবহন ০১৭১১৩২১১৪৩ গ্রীন লাইন পরিবহন ০১৭৩০০৬০০৭১, সৌদিয়া ০১৯১৯৬৫৪৯৩৫, ০১৯১৯৬৫৪৮৫৮, টিআর ট্রাভেলস ০১৯১১৮৬৩৬৭৩ ,সোহাগ পরিবহন ০২-৯৩১১১৭৭, শ্যামলী ,


বিমানে গেলেঃ
বাংলাদেশ বিমান হলোঃ নভোএয়ার ,ইউএস বাংলা,রিজেন্ট এয়ার , ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ, এক্সট। ঢাকা-কক্সবাজার-ঢাকা রিটার্ন টিকিট দশ থেকে সাড়ে এগার হাজার টাকা।


ট্রেনে গেলেঃ
ঢাকা কমলাপুর থেকে চিটাগাং মেইল, তুর্ণানিশিথা, সুবর্ণ এক্সপ্রেস, মহানগর গোধূলীসহ একাধিক ট্রেন যায়।

খাওয়া করবেন কথায়ঃ
বেশ কয়েকটি খাওয়ার হোটেল আছে যেমনঃ ঝাউবন, লাইভ ফিস, কয়লা, পৌশী, স্টোন ফরেস্ট, তারাঙ্গা, কাঁশবন, পানকৌড়ী, নিরিবিলি অর্কিড ক্লাব অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট,ভাতের সাথে বিভিন্ন সামুদ্রিক মাছ, মাংস, ভর্তা-ভাজি, শুটকি মাছ থেকে শুরু করে সব ধরনের খাবার পাওয়া যায়। খাবার অর্ডার দেওয়ার আগে দাম জেনে নেওয়া জরুরি

সেন্টমারটিন
নম্বরে রয়েছে সেন্টমারটিন হলো বিশ্বের অন্যতম সুন্দর জায়গা সেন্টমারটিন ট্রিপের জন্য বিখ্যাত আপনি পাবেন এখানে মাছ ধরার সহ বিভিন্ন সামুদ্রিক প্রাণী কে উত্তেজিত করতেপারে


খাওয়া করবেন কথায়ঃ
খানে পর্যটকদের খাবারের জন্য রয়েছে এখানে বেশ কিছু হোটেল ও রেঁস্তোরা। তার কয়েকটি হল কেয়ারি মারজান রেস্তোরাঁ, বিচ পয়েন্ট, হোটেল আল্লার দান, বাজার বিচ। এছাড়া আসাম হোটেল, সি বিচ, সেন্টমার্টিন, কুমিল্লা রেস্টুরেন্ট, রিয়েল রেঁস্তোরা, হাজী সেলিম পার্ক, সেন্টমার্টিন টুরিস্ট পার্ক, হোটেল সাদেক ইত্যাদি


থাকবেন কথায়ঃ
এইখানে বেশ কয়েকটি হোস্টেল আছে। আপনারা এই হোস্টেলে থাকতে পারেন।পরিবেশ ও খুব ভালো।হিল তাজ রিসোর্ট,হোটেল ক্রাউন প্লাজা,পর্যটন হলিডে কমপ্লেক্স,রিজার্ভ বাজার, হোটেল সুফিয়া,হোটেল প্রিন্স।


বাসে গেলেঃ
এসি বাস১৫০০-১৬০০ টাকা
সেন্টমার্টিন সার্ভিস
নন-এসি বাস সার্ভিস ৭০০-৯০০ টাকা
শ্যামলী,এস আলম, ঈগল,মডার্ন লাইন,
** কেয়া আর নারকেল গাছ সেন্টমার্টিনকে করেছে অপরূপ।

রাঙ্গামাটি
তিন নাম্বারে রয়েছে রাঙ্গামাটি প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরা পার্বত্য চট্টগ্রামের জেলা রাঙ্গামাটি কাপ্তাই লেকের বুকে ভেসে থাকা ছোট্ট এই চেনা শহর আর আশেপাশের সর্বোচ্চ রয়েছে অসংখ্য বৈচিত্র্যময় এখানকার জায়গাগুলো বছরের বিভিন্ন সময় ভিন্ন ভিন্ন রূপে সাজে তবে বর্ষার সাজ একেবারেই অন্য করতেপারে


খাওয়া করবেন কথায়ঃ
ভাল মানের খাবার হোটেল সমুহঃ বনরূপা এলাকা- কুটুমবাড়ি, হোটেল মক্কা; কাঠালতলী এলাকা- হোটেল হিল জামান। এসব হোটেলে সেদ্ধ চালের ভাত রান্না হয় তাই জিজ্ঞেস করার দরকার নেই।এক বেলা খাবারের মূল্য ১২০ থেকে ২০০ টাকা এর মতো পড়বে।


থাকবেন কথায়ঃ
হিল তাজ রিসোর্ট,হোটেল ক্রাউন প্লাজা,পর্যটন হলিডে কমপ্লেক্স,হোটেল সাঙ্ঘাই ইন
আরণ্যক হলিডে রিসোর্টমতি মহল রিজার্ভ বাজার, হোটেল সুফিয়া,হোটেল প্রিন্স।


বাসে গেলেঃ
ইউনিক সার্ভিস,হানিফ এন্টার প্রাইজ,এস আলম,শ্যামলী পরিবহন,শ্যামলী এন.আর ট্রাভেলস,রিলেক্স ট্রান্সপোর্ট

খাগড়াছড়ি
নম্বরে রয়েছে খাগড়াছড়ি সৃষ্টিকর্তার অপার সৌন্দর্যের সাজিয়েছেন খাগড়াছড়িতে এখানে রয়েছে আকাশ পাহাড়ের উপত্যকায় সমতল ও উপজাতীয় সংস্কৃতি বৈচিত্রতা যেদিকেই চোখ যায় শুধু সবুজ আর সবুজ ভ্রমণবিলাসীদের জন্য আদর্শ স্থান রয়েছেকরতেপারে


বাসে গেলেঃ
যেমনঃ এস আলম ০১৮১৩-৩২৯৩৯৪,হানিফ ০১৭১৩৪০২৬৭১,সেন্টমার্টিন পরিবহন ০১৭১১৩২১১৪৩ গ্রীন লাইন পরিবহন ০১৭৩০০৬০০৭১, সৌদিয়া ০১৯১৯৬৫৪৯৩৫, ০১৯১৯৬৫৪৮৫৮, টিআর ট্রাভেলস ০১৯১১৮৬৩৬৭৩ ,সোহাগ পরিবহন ০২-৯৩১১১৭৭, শ্যামলী ,

খাওয়া করবেন কথায়ঃ

ভালো হোস্টেল আছে।


থাকবেন কথায়ঃ

সিলেট চা বাগান
সিলেট বাংলাদেশের যে কয়টি অঞ্চলে চা বাগান পরিলক্ষিত হয় তার মধ্যে সিলেট অন্যতম সিলেটের চা এর রং এবং সুভাষ অতুলনীয় রূপ কন্যা হিসেবে সারাদেশে এক নামে পরিচিত সিলেটেরকরতেপারে


বাসে গেলেঃ
জাফলং যেতে হলে প্রথমে সিলেট আসতে হবে। ঢাকা থেকে সিলেটের দূরত্ব প্রায় ২৪০ কিলোমিটার। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে পৌঁছাতে সময় লাগে ছয় থেকে আট ঘণ্টার বেশি। ঢাকার ফকিরাপুল, গাবতলী, সায়েদাবাদ, ও মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে সিলেটগামী যারা বাজে যাবে তারা এসব বাস এ যেতে পারেন যেমনঃ গ্রীনলাইন, শ্যামলি,এনা, লন্ডন এক্সপ্রেস,রোমার, সহ বিভিন্ন পরিবহনের বাস ঢাকা-সিলেট রুটে চলাচল করে এসি বাসের ভাড়া ১০০০ টাকা থেকে ১২০০ টাকার মধ্যে, এবং নন এসি বাসের ভাড়া ৪৫০ টাকা থেকে ৭০০ টাকার মধ্যে।


বিমানে গেলেঃ
ঢাকা থেকে সবচেয়ে দ্রুত সময়ে সিলেট যেতে আকাশ পথকে বেছে নিতে পারেন। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং ইউএস-বাংলা বিমানের সিলেট যেতে পারেন। টিকেট মূল্য ২৭০০ টাকা থেকে ১০ হাজার টাকার মধ্যে।


ট্রেনে গেলেঃ
ঢাকা থেকে ট্রেনে যেতে চাইলে কমলাপুর কিংবা বিমানবন্দর রেলস্টেশন হতে যে সব ট্রেনে যেতে পারেন যেমনঃ উপবন জয়ন্তিকা, অথবা কালনী এক্সপ্রেস ট্রেন কে বেছে নিতে পারেন। শ্রেণীভেদে ট্রেনের টিকিটের মূল্য 200 টাকা থেকে 750 টাকা পর্যন্ত ।ট্রেনের সিলেট যেতে সময় লাগে প্রায় 7 থেকে 8 ঘণ্টা।

খাওয়া করবেন কথায়ঃ
জিন্দা বাজার এলাকায় অবস্থিত পাঁচ ভাই রেস্টুরেন্ট সুলভ মূল্যে পছন্দমত দেশি খাবার খেতে পারবেন। এর স্টুডেন্ট গুলো অনেক রকম ভর্তা,খিচুড়ি এবং মাংসের জন্য সবার কাছে সমাদৃত। সকালের নাস্তা করতে পারবেন ৫০ থেকে ১০০ টাকায় আর দুপুর বা রাতের খাবার খেতে ১৫০ টাকা থেকে ৩০০ টাকা পর্যন্ত খরচ হবে সিলেট থেকে শুধু যাওয়া আসা এবং জাফলং ঘুরে দেখতে প্রায় ছয় ঘন্টার মত সময় লাগবে ।তাই জাফলং সহ বাকি জায়গাগুলো ঘুরে দেখতে চাইলে অবশ্যই খুব সকালে রওনা দিতে হবে।


থাকবেন কথায়ঃ
রাতে থাকার প্রয়োজন হলে সিলেট শহরে ফিরে আসায় ভালো হবে। সিলেট থেকে অন্যান্য সকল ভ্রমণ স্থানে যাওয়া ও বেশ সুবিধাজনক। সিলেটের বেশিরভাগ হোটেলগুলো শাহজালাল মাজারের আশপাশে অবস্থিত তালতলা বাজার কদমতলী পর্যন্ত বিভিন্ন মানের আবাসিক হোটেল রয়েছে। ভালো সার্ভিসের হোটেল গুলোর মধ্যে আছে যেমনঃ হোটেল মেট্রো ইন্টারন্যাশনাল, ব্রিটানিয়া হোটেল, নির্ভানা, ইন,রোজভিউ, নিরভানা ইন, স্টার প্যাসিফিক ইত্যাদি এসব হোটেলে থাকতে খরচ হবে 2000 টাকা থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত। লাক্সারি হোটেল ও রিসোর্ট এর মধ্যে আছে নাজিমগড় রিসোর্ট হোটেল নূরজাহান গ্র্যান্ড হোটেল এসব হোটেলে প্রতিরোধের জন্য খরচ হবে 8 হাজার টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত।

জাফলং বিছানাকান্দি
জাফলং বিছানাকান্দি সিলেটের পর্যটন দেশের সীমান্ত হীরা পাথর বিছানো মেঘালয় পাহাড় থেকে আসা ঠান্ডা পানি পাশে সবুজের সমারোহ ছোট-বড় পাহাড় দিয়ে ছুটে আসা পানির স্রোতধারা বিছানাকান্দি সৃষ্টি করেছে একই মনোরম পরিবেশে


বাসে গেলেঃ
জাফলং যেতে হলে প্রথমে সিলেট আসতে হবে। ঢাকা থেকে সিলেটের দূরত্ব প্রায় ২৪০ কিলোমিটার। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে পৌঁছাতে সময় লাগে ছয় থেকে আট ঘণ্টার বেশি। ঢাকার ফকিরাপুল, গাবতলী, সায়েদাবাদ, ও মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে সিলেটগামী যারা বাজে যাবে তারা এসব বাস এ যেতে পারেন যেমনঃ গ্রীনলাইন, শ্যামলি,এনা, লন্ডন এক্সপ্রেস,রোমার, সহ বিভিন্ন পরিবহনের বাস ঢাকা-সিলেট রুটে চলাচল করে এসি বাসের ভাড়া ১০০০ টাকা থেকে ১২০০ টাকার মধ্যে, এবং নন এসি বাসের ভাড়া ৪৫০ টাকা থেকে ৭০০ টাকার মধ্যে।


বিমানে গেলেঃ
ঢাকা থেকে সবচেয়ে দ্রুত সময়ে সিলেট যেতে আকাশ পথকে বেছে নিতে পারেন। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং ইউএস-বাংলা বিমানের সিলেট যেতে পারেন। টিকেট মূল্য ২৭০০ টাকা থেকে ১০ হাজার টাকার মধ্যে।


ট্রেনে গেলেঃ
ঢাকা থেকে ট্রেনে যেতে চাইলে কমলাপুর কিংবা বিমানবন্দর রেলস্টেশন হতে যে সব ট্রেনে যেতে পারেন যেমনঃ উপবন জয়ন্তিকা, অথবা কালনী এক্সপ্রেস ট্রেন কে বেছে নিতে পারেন। শ্রেণীভেদে ট্রেনের টিকিটের মূল্য 200 টাকা থেকে 750 টাকা পর্যন্ত ।ট্রেনের সিলেট যেতে সময় লাগে প্রায় 7 থেকে 8 ঘণ্টা।

খাওয়া করবেন কথায়ঃ
জিন্দা বাজার এলাকায় অবস্থিত পাঁচ ভাই রেস্টুরেন্ট সুলভ মূল্যে পছন্দমত দেশি খাবার খেতে পারবেন। এর স্টুডেন্ট গুলো অনেক রকম ভর্তা,খিচুড়ি এবং মাংসের জন্য সবার কাছে সমাদৃত। সকালের নাস্তা করতে পারবেন ৫০ থেকে ১০০ টাকায় আর দুপুর বা রাতের খাবার খেতে ১৫০ টাকা থেকে ৩০০ টাকা পর্যন্ত খরচ হবে সিলেট থেকে শুধু যাওয়া আসা এবং জাফলং ঘুরে দেখতে প্রায় ছয় ঘন্টার মত সময় লাগবে ।তাই জাফলং সহ বাকি জায়গাগুলো ঘুরে দেখতে চাইলে অবশ্যই খুব সকালে রওনা দিতে হবে।

থাকবেন কথায়ঃ
রাতে থাকার প্রয়োজন হলে সিলেট শহরে ফিরে আসায় ভালো হবে। সিলেট থেকে অন্যান্য সকল ভ্রমণ স্থানে যাওয়া ও বেশ সুবিধাজনক। সিলেটের বেশিরভাগ হোটেলগুলো শাহজালাল মাজারের আশপাশে অবস্থিত তালতলা বাজার কদমতলী পর্যন্ত বিভিন্ন মানের আবাসিক হোটেল রয়েছে। ভালো সার্ভিসের হোটেল গুলোর মধ্যে আছে যেমনঃ হোটেল মেট্রো ইন্টারন্যাশনাল, ব্রিটানিয়া হোটেল, নির্ভানা, ইন,রোজভিউ, নিরভানা ইন, স্টার প্যাসিফিক ইত্যাদি এসব হোটেলে থাকতে খরচ হবে 2000 টাকা থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত। লাক্সারি হোটেল ও রিসোর্ট এর মধ্যে আছে নাজিমগড় রিসোর্ট হোটেল নূরজাহান গ্র্যান্ড হোটেল এসব হোটেলে প্রতিরোধের জন্য খরচ হবে 8 হাজার টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত।


আমার কথাঃ-
ভ্রমণ নিয়ে যদি আরো কোন কিছু জানার থাকে- তাহলে কমেন্ট করে আপনার প্রশ্ন আমাদেরকে জানাতে পারেন। যেহেতু সময়ের সাথে সাথে অনেক তথ্যই পরিবর্তন হয় তাই সর্বশেষ আপডেট তথ্য পেতে এই পোষ্টটি কমেন্ট করে আমাদেরকে জানাতে পারেন। এখন বিদায় সামনে আবারও দেখা হবে। নতুন কোন পোষ্ট নিয়ে। সেই পর্যন্ত ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন
ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published.