ভালো ঘুমের উপায়-২০২১

ভালো ঘুমের উপায়-২০২১

পৃথিবীর সকল প্রাণীর ঘুম দরকার। শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে পর্যাপ্ত ঘুমের বিকল্প নেই। ক্লান্তি দূর করতে আপনাকে ঘুমের আশ্রয় নিতে হবে। নইলে ডার্ক সার্কেল, স্থূলতা কথা বলতে কোন সমস্যা ছাড়বে না!

কিন্তু আপনি যদি বলেন ঘুম, আপনি ঘুমাতে পারবেন না। বিপরীতে, জীবনযাত্রার পরিবর্তন অনেকের জীবন থেকে সুখের ঘুম কেড়ে নিয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মতে, দশ জনের মধ্যে ছয়জনকে কোনো এক সময় ঘুমের ওষুধ খেতে হয়েছে।

কিন্তু আপনি কি জানেন যে medicineষধ ছাড়া সাধের ঘুম সহজেই চোখের পাতায় নামানো যায়। কিছু নিয়ম মেনে চলতে হয়। আসুন জেনে নিই সব নিয়ম-

  • সঠিক বালিশ কি বা ভালো ঘুমের মন্ত্র। বালিশের বানান এমনভাবে করুন যাতে ঘাড় সোজা বালিশের উপর থাকে, কাত না হয়। একটি বালিশ তৈরি করুন যা কাঁধকে সমর্থন করতে পারে। বালিশে তুলা রাখাই ভালো। যদি আপনি একা করতে না পারেন, একটি ভাল ফেনা বালিশ তৈরি করুন। তবে স্পঞ্জ বালিশ ব্যবহার না করাই ভালো। গদি ক্ষেত্রেও স্পঞ্জ ব্যবহার না করে নারিকেল ভুষি গদি বা ভাল মানের তুলা গদি ব্যবহার করুন।

  • সামান্য আলোতেও অনেকে ঘুমাতে পারে না। রাতে সম্পূর্ণ অন্ধকার ঘরে ঘুমানো কোনো সুবিধা নয়। নাইট ল্যাম্পের নরম আলো ঘুমাতে অসুবিধা করলেও চোখের মাস্ক রাখুন।

  • ঘুমানোর আগে চিনি ছাড়া গ্রিন টি খান। চা মস্তিষ্ককে সক্রিয় করে, তাই অনেকে ঘুমানোর আগে চা -কফি থেকে দূরে থাকাই ভালো মনে করে। যদিও এই নিয়ম সাধারণ চায়ের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য, চিনি ছাড়া গ্রিন টি শরীরকে ডিটক্সিফাই করতে এবং ঘুমাতে সাহায্য করে।

  • সুবাস ঘুম এনে দেয়। তাই ঘুমানোর আগে ঘরে ‘স্লিপ স্প্রে’ স্প্রে করুন। বিভিন্ন ফুলের ঘ্রানের সাথে মিলে যাওয়া স্প্রে যে কোন অনলাইন শপ বা নামী দোকানে সহজেই পাওয়া যাবে।

  • আপনার ঘুমের জন্য একটি হালকা গানের সিডি বা গল্পের বই রাখুন। আপনার যদি পড়ার নেশা থাকে, আপনি একটি বই পড়ার সময় ঘুমিয়ে পড়বেন। অন্যথায় সিডি প্লেয়ারে কোন হালকা গান বাজান। যা সহজেই শরীর এবং মস্তিষ্ককে শান্ত করবে এবং তাদের ঘুমাতে দেবে।

  • যদি আপনার ঠান্ডা লাগার প্রবণতা না থাকে, তাহলে ঘুমাতে যাওয়ার আগে হালকা গরম পানি দিয়ে গোসল করুন। এতে ঘুম ভালো হতে বাধ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.