মুশফিকুর রহিমের জন্ম ৯ জুন ১৯৮৭ সালে বগুড়া, বাংলাদেশে। তাঁর বাবা মাহবুব হাবিব রহিম খাতুন। তিনি বগুড়া জিলা স্কুলে মাধ্যমিক বিদ্যালয় শেষ করেন। ক্রিকেট খেলার সময়, তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাস অধ্যয়ন করেন। তিনি ২০১২ সালে তার মাস্টার্স ডিগ্রি পরীক্ষায় বসেছিলেন। তার উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি (১.৬৩ ) মি.।

রহিম স্প্যানিশ দৈত্য এফসি বার্সেলোনার একজন বিনয়ী ফ্যান। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৪ তারিখে তিনি জনাতুল কাইফাতকে বিয়ে করেন। তার ছেলের নাম মো. শাহরুজ রহিম মায়ান।মোহাম্মদ মুশফিকুর রহিম একজন বাংলাদেশী ক্রিকেটার এবং বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক। ২০০৯ থেকে ২০০৯ সালের ডিসেম্বরে রহিম সব ফরম্যাটে বাংলাদেশের উপ-অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

মুশফিকুর রহিম এর জীবন কাহিনী ?মুশফিকুর রহিম এর লাইফ স্টোরি, সম্পদ, বেতন, উচ্চতা কত ফিট?আজকে এমন একজন মানুষের কথা বলবো যিনি ছিলেন সহজ-সরল, আবেগী ও পরিশ্রমী ক্রিকেটার। আবার ২০১৯ সালে বিশ্বকাপে একজন সমালোচিত উইকেট কিপার ও তিনি। ২০১২ সালে ছিলো এশিয়া কাপের ফাইনাল। সেখানে ২ রানে হেরে গিয়ে মাঠের সেই ১১ সৈনিকেই কোনো ভাবেই চোখের কান্না যেন লুকাতে পারে নাই। সেই ১১ জনের মধ্যেই একজন সবচেয়ে বেশি কাঁদছিল,কান্না করতে করতেই যিনি সাকিব আল হাসানের বুকে ঠাঁই দিয়েছিল।

আর সেদিনের কান্নার কথা খেয়াল করলে চোখে পানি চলে আসবে যেকোনো ক্রিকেট প্রেমিকের। যিনি হেরে গিয়ে যেমন কেঁদে আলোচনায় এসেছেন,তেমন জিতে গিয়েও সবার নজরে এসেছেন। তিনি আর কেউ নন, তিনি আমাদের সবার পরিচিত এবং প্রিয় মুখ ‘মুশফিকুর রাহিম’ ভাই। তিনি বাংলাদেশের মিষ্টার ডিপেন্টডেট নামে পরিচিত।

তিনি আবার কতো মেচের নায়ক আবার খলনায়ক। তিনি বাংলাদেশের কোটি কোটি মানুষের পছন্দের একজন ব্যাটসম্যান। আর আমার প্রিয় পাঠকরা যে তার পরিচয় কি? তার বয়স,ওজন,বিবাহিত জীবন,সম্পদ,উচ্চতা,ইত্যাদি কি জানবেনা তা কি হতে পারে।

 

ব্যক্তিগত তথ্যঃ

  • পূর্ণ নামঃ মোহাম্মদ মুশফিকুর রহিম
  • জন্মঃ ৯ মে ১৯৮৭ (বয়স ৩৪)
  • বাবার নামঃ মাহবুব হামিদ তারা
  • মায়ের নামঃ রহিমা খাতুন
  • স্ত্রীঃজান্নাতুল কিফায়াত মন্ডি
  • জন্মস্থানঃ বগুড়া, বাংলাদেশ।
  • ডাকনামঃ মিতু
  • উচ্চতাঃ ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি (১.৬৩ মিটার)
  • ব্যাটিংয়ের ধরনঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান
  • ভূমিকাঃ উইকেট-রক্ষক, ব্যাটসম্যান

আর্ন্তজাতিক তথ্যঃ

  • জাতীয় পার্শ্ব–——-বাংলাদেশ
  • টেস্ট অভিষেক-—– ২৬ মে ২০০৫ বনাম ইংল্যান্ড
  • (ক্যাপ ৪১) শেষ টেস্ট—- ২১ এপ্রিল ২০২১ বনাম শ্রীলঙ্কা
  • (ক্যাপ ৮০)——– ৬ আগস্ট ২০০৬ বনাম জিম্বাবুয়ে
  • শেষ ওডিআইঃ ২৬ মার্চ ২০২১ বনাম নিউজিল্যান্ড
  • (ক্যাপ ১৫)——২৮ নভেম্বর ২০০৬ বনাম জিম্বাবুয়ে
  • শেষ টি২০আই-—- ১১ মার্চ ২০২০ বনাম জিম্বাবুয়ে

ঘরোয়া দলের তথ্যঃ

 

  • ২০০৬-রাজশাহী বিভাগ
  • ২০০৭-সিলেট বিভাগ
  • ২০০৮–রাজশাহী বিভাগ
  • ২০১২- দুরন্ত রাজশাহী
  • ২০১২-নাগেনাহিরা নাগাস
  • ২০১৩- ২০১৫ঃসিলেট রয়্যালস
  • ২০১৬- করাচী কিংস
  • ২০১৬-বরিশাল বুলস
  • ২০১৮-১৯ঃচিটাগাং ভাইকিংস।

রহিমের ব্যাটিং এতটা বহুমাত্রিক যে তিনি এক থেকে ছয় পর্যন্ত যে কোন অর্ডারে খেলতে পারেন একথা বলেছিলেন বাংলাদের দলের সাবেক কোচ জেমি সিন্ডস।

মুশফিকুর রহিম এর জীবন কাহিনী ?মুশফিকুর রহিম এর লাইফ স্টোরি, সম্পদ, বেতন, উচ্চতা কত ফিট?কর্মজীবন

জাতীয় দলের জন্য খেলার আগে রহিম বাংলাদেশ আন্ডার -17-এর জন্য খেলেন। ২০০৪ থেকে ২০০৬ সালের মধ্যে তিনটি যুব টেস্ট এবং 18 টি যুব ওয়ানডে ওয়ানডেতে তিনি তাদের প্রতিনিধিত্ব করেন, ৩১.৭৫ এবং ৩৬.০০ গড়ে নিজ নিজ ফর্ম্যাটে ব্যাট করে। রহিম বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব স্পোর্টস-এ প্রশিক্ষিত।২০১০ সালের মে মাসে লর্ডসে টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাট করছেন।

 

২০০৬ সালের ইউ -১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের সময় ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার হোস্টিং অনুষ্ঠিত হয়, রহিম বাংলাদেশ দলের পাশাপাশি ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান এবং তামিম ইকবালকেও অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন। টেস্ট ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা নিয়ে টুর্নামেন্টে রহিম দুটি খেলোয়াড় ছিলেন।

অধিনায়ক মুশফিকুর রাহিম

মুশফিকুর রাহিম ২০১১ সাল থেকে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করে আসছে। তার নেতৃত্বে এশিয়া কাপে বাংলাদেশ নিজেদের সেরা পারফরমেন্সে রানার্সআপ হয়।
মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশ টিমের একজন চৌকস খেলোয়াড়। তার মেধাশক্তি এবং নিজ কর্মের অনেক চমকপ্রদ দেখিয়েছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ক্রীড়াঙ্গনে। তার নেতৃত্বে টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়া, শ্রীলঙ্কা ও ইংলেন্ডের মতো শক্তিশালী দলকে হারিয়ে রানার্সআপে জায়গা দখল করে নিয়েছে ২০১১ সালে।

মুশফিকুর রহিম উচ্চতা – ৫ ফুট ৩ ইঞ্চি।

 

আরো পরুন—

By Taher

আসসালামু-আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি-ওয়াবারাকাতুহু ।আমি মোঃ আবু তাহের ইসলাম (আমান)। আমি গয়াবাড়ি স্কুল এন্ড কলেজ পড়াশোনা করি । আমি এসএসসি পরীক্ষার্থী 2022 সাল । আমার সাবজেক্ট একাউন্টিং। আমি ভবিষ্যতে যেকোনো একটি ভালো প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে আমার জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী । আমার পুরো জীবনটা হচ্ছে, একটা সরল অংকের মত । যতই দিন যাচ্ছে ততই আমি সমাধানের দিকে যাচ্ছি ইনশাআল্লাহ......নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই https://dailyinfo71.com/ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি। ধন্যবাদ সবাইকে

Leave a Reply

Your email address will not be published.