মেয়েদের পুলিশ অফিসার হওয়ার যোগ্যতা কিরুপ-

পুলিশের চাকরি আমাদের দেশে সবচেয়ে জনপ্রিয় পেশা। বর্তমানে পুলিশ পেশায় কর্মরত আছেন অনেকে। অনেকেই এই কাজে যোগ দিচ্ছেন।

পুলিশের চাকরি আমাদের দেশে সবচেয়ে জনপ্রিয় পেশা। বর্তমানে পুলিশ পেশায় কর্মরত আছেন অনেকে। অনেকেই এই কাজে যোগ দিচ্ছেন।

এর পেছনে সবচেয়ে বড় কারণ হলো পুলিশে চাকরির জন্য তেমন কোনো যোগ্যতা লাগে না। উচ্চ পদে যেতে হলে আপনাকে স্নাতকোত্তর বা ডিগ্রী সম্পন্ন করতে হবে, তবে সাধারণ পদে যোগদানের জন্য আপনাকে শুধুমাত্র এসএসসি পর্যন্ত পড়তে হবে।

বর্তমানে আমাদের দেশে ছেলেদের সাথে সমানভাবে মেয়েরা পুলিশে যোগদান করছে। আজ আমরা এই নিবন্ধে মেয়েদের পুলিশ অফিসার হওয়ার যোগ্যতা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করছি। তার আগে পুলিশ র‌্যাঙ্ক ব্যাজসহ পুলিশের পদমর্যাদা ও বেতন সম্পর্কে ধারণা নিতে পারেন।

মেয়েদের পুলিশ অফিসার হওয়ার যোগ্যতা

  • বয়সের ধরন?

মেয়েদের পুলিশ অফিসার হওয়ার যোগ্যতা হিসাবে প্রথম জিনিসটি হল তার বয়স কমপক্ষে 18 বছর হতে হবে। 18 বছরের কম বয়সী কাউকে ভর্তি করা হয় না। আর এই আবেদন করা যাবে ২০ বছর বয়স পর্যন্ত। 20 বছর বয়সের পরে কোন সময়সীমা নেই।

তবে মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হলে ৩২ বছর বয়স পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। 18 থেকে 20 বছর বয়সী সকলকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

  • উচ্চতা
    মেয়েদের জন্য ন্যূনতম ৫ ফুট ২ ইঞ্চি। 5 ফুট 2 ইঞ্চির নিচে কোনো মেয়েকে পুলিশি চাকরিতে নেওয়া হবে না। আর উচ্চতা ৫ ফুট ২ ইঞ্চির বেশি হলে সমস্যা নেই।

 

  •  ওজন
    বয়স এবং উচ্চতার জন্য ওজন যদি আদর্শের মধ্যে থাকে তবে এটিকে আরও অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। শিক্ষার্থীদের ওজন উচ্চতার উপর নির্ভর করে। ধরুন একজন মহিলার উচ্চতা 5 ফুট 3 ইঞ্চি এবং ওজন 53 কেজি। তাই তার BMI হল 20.65। এটি সুস্বাস্থ্যের আদর্শ মান নির্দেশ করে।

আর একটা জিনিস অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যে আপনাকে অবশ্যই অবিবাহিত হতে হবে। আপনি বিবাহিত হলে এই চাকরিতে যোগ দিতে পারবেন না।

  • শিক্ষাগত যোগ্যতা
    পুলিশে চাকরির প্রার্থীদের ন্যূনতম এসএসসি পরীক্ষা পর্যন্ত শিক্ষা থাকতে হবে। উচ্চ পদে আবেদন না করে সাধারণ পদে আবেদন করলে এসএসসি পরীক্ষা পর্যন্ত পড়া বাধ্যতামূলক। আর এই পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ২.৫ থাকতে হবে। তাহলে সহজেই পুলিশে চাকরির জন্য আবেদন করা যাবে।

কি কি ধাপ অতিক্রম করতে হবে?

পুলিশের চাকরি পেতে আপনাকে বেশ কিছু ধাপ অতিক্রম করতে হবে। তা নিচে বিন্দু আকারে উল্লেখ করা হলো-

  • পুলিশের চাকরির জন্য আবেদন করার প্রথম ধাপে আপনাকে নির্ধারিত তারিখের যেকোনো একটিতে আপনার জেলার পুলিশ লাইন্স মাঠে যথাসময়ে উপস্থিত হতে হবে। আপনাকে অবশ্যই আপনার সাথে সমস্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র বহন করতে হবে। আপনার জন্ম শংসাপত্রের ফটোকপি, পিতামাতা এন. I. D. কার্ডের ফটোকপি অবশ্যই এই নথিগুলির সাথে নিতে হবে।

 

  • সেখানে আপনার বয়স পরীক্ষা করা হবে। কিছু শারীরিক বৈশিষ্ট্য আপনার বয়স নির্ধারণ করতে পারে। বিশেষ করে দাঁত পরীক্ষা করে বয়স নির্ধারণ করা যায়। তারপর আপনার উচ্চতা পরীক্ষা করা হবে। আগেই বলা হয়েছে উচ্চতা কমপক্ষে ৫ ফুট ২ ইঞ্চি হতে হবে। তারপর তারা আপনার বয়স এবং উচ্চতা অনুযায়ী আপনার ওজন দেখবে।

 

  • বয়স, উচ্চতা ও ওজন পরীক্ষার পর অওনার শারীরিক সুস্থতা পরীক্ষা করা হবে। এক্ষেত্রে একেক জায়গায় একেক ধরনের কাজ দেওয়া হয়। পরীক্ষা চালানো যেতে পারে। লং জাম্পও পরীক্ষা করা হয়। এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। এই পরীক্ষাটি ক্লিয়ার করার পরে আপনাকে একটি প্রবেশপত্র দেওয়া হবে।

 

  • ৩য় ধাপে উত্তীর্ণ হওয়ার পর আপনাকে যে প্রবেশপত্র দেওয়া হবে তা আপনার ৪র্থ ধাপের জন্য উপযোগী হবে। এই পর্বে তিনটি পরীক্ষা রয়েছে। লিখিত, মনস্তাত্ত্বিক এবং মৌখিক পরীক্ষা।

লিখিত পরীক্ষা

লিখিত পরীক্ষার জন্য ভালোভাবে প্রস্তুতি নিলে আপনি সহজেই এই পর্যায়টি পাস করতে পারবেন। যেহেতু বলা হয় এসএসসি পরীক্ষা পর্যন্ত পড়ালেখাই যথেষ্ট, তারা অষ্টম থেকে দশম শ্রেণির বই থেকে প্রশ্ন করে। এর বাইরে তারা কোনো প্রশ্ন করে না।

কারণ ন্যূনতম এসএসসি যোগ্যতা প্রয়োজন। এই পরীক্ষা সরাসরি কাগজে পরিচালিত হয়। অনলাইন নেই. এই পরীক্ষার সময়কাল 1 ঘন্টা 30 মিনিট অর্থাৎ 90 মিনিট। এই পরীক্ষার মোট স্কোর 40।

আর যারা এই 40 নম্বরের পরীক্ষায় ভালো করবে তাদের নির্বাচিত করা হয়। কিন্তু পরীক্ষায় পাসিং মার্ক 18। অর্থাৎ প্রত্যেকের কমপক্ষে 45% নম্বর পেতে হবে। আর কেউ যদি এর কম পায় তাহলে সে অবৈধ। তিনি আর কোনো পদক্ষেপে এগোতে পারবেন না।

অষ্টম থেকে দশম শ্রেণির বাংলা, ইংরেজি এবং গণিত এই তিনটি বইয়ের ধারণাগুলো ভালোভাবে আয়ত্ত করা গেলে সহজেই এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারে। কারণ তারা বিজ্ঞান ও সমাজ নিয়ে লেখালেখিতে অনেক প্রশ্ন করে না।

মনস্তাত্ত্বিক পরীক্ষা

আপনার জ্ঞান পরীক্ষা করার জন্য আপনাকে কিছু বুদ্ধিমত্তা প্রশ্নের ভিত্তিতে এই পরীক্ষা দিতে হবে। এখানে আপনাকে বিভিন্ন ধরনের প্রশ্ন করা হতে পারে। কিন্তু খুব কঠিন প্রশ্ন করা হয় না। একটু মাথা কাত করাই যথেষ্ট।

মৌখিক পরীক্ষা

এখানে মৌখিক পরীক্ষায় খুব বেশি প্রশ্ন করা হয় না। সাধারণত, আপনার ব্যক্তিগত তথ্য বেশি জিজ্ঞাসা করা হয়। তাছাড়া, তারা আপনাকে সাধারণ জ্ঞান সম্পর্কে অনেক প্রশ্ন করতে পারে।

কোন মুদ্রার নাম কী, এসব নিয়ে দুটি প্রশ্ন করলেন প্রধানমন্ত্রী। সাম্প্রতিক সমস্যাগুলিও এখানে জিজ্ঞাসা করা হয়। এবং মৌখিক পরীক্ষার সময় আপনাকে অবশ্যই মার্জিত পোশাক পরে উপস্থিত হতে হবে এবং উজ্জ্বল নয়।

আপনাকে ভদ্র থাকতে হবে। আর সবকিছু মাথায় রেখে সঠিকভাবে প্রশ্নের উত্তর দিতে পারলে পি

লেখ্য, নেটওয়ার্কদেরকে আবেদনের পর তাদের রোল নম্বর তাদের মুক্তি দেয়। এই ধাপ উত্তরীর্ণ হতে পাসওয়ার্ড, পরের ধাপে পাসে যেতে হবে।

 

  • লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ নম্বর পর সকলকে পুলিশ ভেরিফিকেশন করতে হয়। এটি এক ধরনের সত্য সার্টিফিকেট। এটি এই মর্মে প্রত্যয়ন করা হয়, কোন ব্যক্তি সমাজে কোন ধরনের ফৌজদারী অপরাধী করেন। আমরা এই নিয়ে একটি লেখা লিখেছি।

 

  • পুলিশ ভেরিফিকেশন এর পর আপনার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হবে। আপনার স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সকল বিষয় এখানে প্রাধান্য দিতে হবে। আপনার হেপা টাইটিস বি হচ্ছে কি না, কোনো ধরনের মাধ্যমে আপনি সমস্যা কি না, তাও এখানে পরীক্ষা করা হবে। আবার আপনি শারীরিকভাবে ফিট তাও দেখাতে হবে।

 

  • সকল তথ্য ডক্টরি সার্টিফিকেট শোধন করতে হবে। যদি কোন প্রকার ড্যামেজ থাকলে, হাড় কাটা থাকলে, অস্ত্রোপচারের চিহ্ন থাকলে আপনি কোনো অবস্থা এখানে যোগদান করতে পারবেন না। এখানে টিকতে তথ্যইথা।

 

  • আপনাকে প্রশিক্ষণের জন্য নির্বাচন করতে হবে। পুলিশ হেডর্টার এর আধিকারিকদের একটি অংশে গঠিত একটি প্রশিক্ষণকেন্দ্র রয়েছে। এখানে আপনাকে কয়েক দিন দেওয়া হবে। অতঃ পর শারীরিক আদর্শ পছন্দ করা হবে।

 

সাথে তথ্য বিলুপ্ত করে একত্রে আপনাকে কনস্টেবল পদে অন্যটি টিআরসি পদে রাজনীতি করার জন্য একাধিক অনুশীলন করা হবে। এটাকে বলে ট্রেইনিং রিক্রুট। আপনাকে দিতে হবে। এবং উচ্চ পর্যায়ে আপনার পদোন্নতি হবে।

আর পুলিশ চাকরিতে বেতনেরও অনেক ভাতা আর রেশন সুবিধা আছে।

পরিশেষে
এই ছিল আমাদের রাজনৈতিক দল গঠন নিয়ে আলোচনা। লেখাটা খুব সহজভাবে সলিল ব্ল্যাক করেছি। আশা করি আমি আমার মন্তব্যটি ভালোভাবে উল্লেখ করছি। শুভকামনা গোলাপ।

By Taher

আসসালামু-আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি-ওয়াবারাকাতুহু ।আমি মোঃ আবু তাহের ইসলাম (আমান)। আমি গয়াবাড়ি স্কুল এন্ড কলেজ পড়াশোনা করি । আমি এসএসসি পরীক্ষার্থী 2022 সাল । আমার সাবজেক্ট একাউন্টিং। আমি ভবিষ্যতে যেকোনো একটি ভালো প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে আমার জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী । আমার পুরো জীবনটা হচ্ছে, একটা সরল অংকের মত । যতই দিন যাচ্ছে ততই আমি সমাধানের দিকে যাচ্ছি ইনশাআল্লাহ......নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই https://dailyinfo71.com/ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি। ধন্যবাদ সবাইকে

One thought on “মেয়েদের পুলিশ অফিসার হওয়ার যোগ্যতা কিরুপ-”

Leave a Reply

Your email address will not be published.