যে ৪ ধরনের খাবার খেলে মাথায় টাক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে ১০০% সত্যি-

যে ৪ ধরনের খাবার খেলে মাথায় টাক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে ১০০% সত্যি-

অনেকেই এখন চুল পড়ার সমস্যায় ভুগছেন। দেখা যায় চিরুনি দিয়ে মাথা আঁচড়ানোর ফলে অনেক চুল গজায়। এই সমস্যা দেখা দিলে চিন্তিত হওয়া স্বাভাবিক। সাধারণত যত্ন না নিলে চুল পড়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়।
আবার দেখা যায় যে নিয়মিত তেল দেওয়া, শ্যাম্পু করা এবং কন্ডিশনিং করার পরেও চুল পড়ে যাচ্ছে। বিশেষ কোনো অসুস্থতা থাকলে ব্যাপারটা ভিন্ন। অন্যথায় খাবারের দিকে নজর রাখুন। কিছু খাবার আছে যা চুল পড়ার ঝুঁকি বাড়ায়। এমনকি টাক হওয়ার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। চলুন জেনে নিই সেই খাবারগুলো সম্পর্কে-

চিনি

আপনি কি প্রচুর চিনি বা মিষ্টি খান? কিন্তু তারপর এটি আপনার চুল পড়ে যাওয়ার কারণ হতে পারে। অতিরিক্ত চিনিও টাক হতে পারে। তাই আপনি মিষ্টি পছন্দ করলেও পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করুন এবং খান।

ময়দা

বাসায় সবসময় লুচি-পরোটা খাচ্ছেন? ময়দা দিয়ে তৈরি এই লুচি বা পরোটাই আপনার চুলের ক্ষতি করছে। কারণ এতে গ্লাইসেমিক ইনডেক্স বা জিআই এর পরিমাণ হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট করে। ফলে চুলের বৃদ্ধির ঝুঁকি থাকে। শুধু ময়দা নয়, রুটিও একই কারণে খাদ্য তালিকা থেকে বাদ দেওয়া উচিত।

অ্যালকোহল

আপনি কি মনে করেন তরল পানীয়ের এক চুমুক খেলে চুলের এত বড় ক্ষতি হতে পারে? কিন্তু গবেষণা তাই বলে। অতিরিক্ত অ্যালকোহল সেবন চুলের ফলিকল ধ্বংস করে। কিন্তু পরিমিত পান করাও চুলের ক্ষতি করে। অ্যালকোহল চুলের স্বাভাবিক প্রোটিন কেরাটিন ধ্বংস করে চুলকে দুর্বল করে।

গ্রিল

বারবিকিউ খেতে ভালোবাসেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া সত্যিই কঠিন! কিন্তু এই ধরনের খাবার খেলে হৃদরোগ ও ওজন বাড়ার পাশাপাশি চুল পড়ার ঝুঁকি বাড়ে। বারবিকিউ খেলে মাথার ত্বক আরও তৈলাক্ত হয় এবং মাথার ত্বকের ছিদ্রও বন্ধ হয়ে যায়। এতে চুলের ক্ষতি হতে পারে

Leave a Reply

Your email address will not be published.