হিজাবিদের জন্য দারুণ কিছু টিপস-

হিজাবিদের জন্য দারুণ কিছু টিপস-

আজকাল অনেক মেয়েই মোডেস্ট গেটআপ পছন্দ করে। এখন মেয়েরা সর্বত্র বিচরণ করছে, সংসার সামলাচ্ছে, ক্যারিয়ার গুছিয়ে করছে, শিক্ষা-গবেষণা কোনোভাবেই পিছিয়ে নেই। বাইরে বের হলে পর্দা বজায় রাখার জন্য হিজাব বা স্কার্ফ দিয়ে মাথা ঢেকে রাখতে হয় এবং অনেকেই এই গেট আপে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন।

আসলে, এটি একটি ব্যক্তিগত পছন্দ। হিজাব পরা পর্দার পাশাপাশি সামগ্রিক চেহারায় কমনীয়তা বজায় রাখে। আজ রইল হিজাবিদের জন্য দারুণ কিছু হ্যাক এবং টিপস, যা আপনার জীবনকে একটু সহজ করে তুলবে। তাহলে দেখে নিন তারা কী!

হিজাবিদের জন্য বিশেষ টিপস এবং কৌশল
আমাদের ব্যস্ত জীবনে আমরা দ্রুত সমাধান চাই। নিয়মিত জীবনে আমরা কী ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হই? আমরা যারা প্রতিদিন হিজাব পরে বাইরে যাই তাদের একটু বাড়তি নিজের যত্ন এবং মনোযোগ প্রয়োজন। আজ আমি হিজাবিদের জন্য কিছু দুর্দান্ত টিপস শেয়ার করব, যা আপনি সহজেই নিয়মিত জীবনে একীভূত করতে পারেন।

স্টাইলিং টিপস এবং কৌশল

ভলিউম সহ হিজাব পরা গ্রীষ্মের জন্য মোটেই উপযুক্ত নয়। এটি মাথা ভারী করে তোলে, মাথার ত্বকে প্রচুর ঘাম হয় এবং আপনি আরাম বোধ করেন না। আঁটসাঁট হিজাব স্টাইল এড়িয়ে চলুন এবং নৈমিত্তিক ফ্লয় হিজাব স্টাইলে নিজেকে সাজান। আপনি খুব বেশি স্তর ব্যবহার না করে এবং খুব বেশি পিন ব্যবহার না করে আপনার পছন্দের স্কার্ফটি আপনার মাথায় মুড়ে দিতে পারেন।

আপনি যদি এক রঙের পোশাক পরেন তবে আপনি অন্য রঙের হিজাব পছন্দ করবেন এবং আপনি যদি প্রিন্টেড বা ফ্লোরাল মোটিফের সাথে একটি স্কার্ফ নির্বাচন করেন তবে আপনি খুব ট্রেন্ডি লুক পাবেন। আর আপনি যদি রঙিন এবং প্রিন্টেড ড্রেস পরেন তবে হালকা রঙের হিজাব বহন করতে পারেন। কালার কন্ট্রাস্ট দিয়ে পরলে এটি স্টাইলিশ দেখাবে। সাদা, পীচ রঙের হালকা শেড, বেবি পিঙ্ক, ব্রাউন, স্কাই ব্লু, ল্যাভেন্ডার বা বেগুনি গ্রীষ্মের পোশাকের জন্য দুর্দান্ত বিকল্প।

হিজাব কাপড় নির্বাচন
গ্রীষ্মের জন্য সুতির হিজাব নির্বাচন করুন। নিয়মিত পোশাক হিসেবে আরামদায়ক কাপড় বেছে নেওয়াই ভালো। সুতির কাপড় সহজেই ঘাম শোষণ করে এবং মাথার ত্বকে বাতাস প্রবাহিত করতে দেয়। শীতকালে আপনার জন্য আরও বিকল্প রয়েছে, তবে তুলা ভিত্তিক কাপড় গ্রীষ্মে উপযুক্ত।

মাস্ক সহ হিজাব
নিউ নর্মাল লাইফে বাইরে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। হিজাব পরলে কানও ঢেকে যায়, তাই মাস্ক পরার সমস্যায় পড়তে হয় অনেকে। অনেকেই মুখোশ পরে হিজাব পরে স্কার্ফ পরে। হিজাব পরার পর, আপনি মাস্কটি পরে পিন করতে পারেন বা স্কার্ফের ভেতর দিয়ে একটি ছোট সেফটি পিন দিয়ে মাস্কটি পিন আপ করতে পারেন। আর মাস্ক লাগানোর আগে ঠোঁটে কোনো লিপ জেল বা স্টিকি লিপগ্লস লাগাবেন না, এটা আপনাকে অস্বস্তিতে ফেলবে।

দ্রুত চুলের যত্নের টিপস
সহজে হিজাবি চুলের যত্ন নেওয়ার টিপস চাই! অনেকেই জানতে চান। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল মাথার ত্বক এবং চুল পরিষ্কার রাখা। স্ক্যাল্প পরিষ্কার থাকলে চুলের সমস্যা অনেকটাই সমাধান! হিজাবিরা একটু বেশি ঘামে, এবং খুশকির প্রবণতা বেশি।

1) প্রথম টিপস হল সেরা হিজাব শ্যাম্পু নির্বাচন করা। মাথার ত্বক এবং চুল সঠিকভাবে পরিষ্কার রাখুন। হিজাবের চুলের সমস্যাকে লক্ষ্য করে এখন বাজারে শ্যাম্পু পাওয়া যায়। এমন শ্যাম্পু বেছে নিন যা মাথার ত্বককে রক্ষা করবে, খুশকি মুক্ত রাখবে অনেকক্ষণ, সেই সঙ্গে চুলকে করবে কোমল। এক্ষেত্রে আমার প্রথম পছন্দ ক্লিয়ার হিজাব পিওর শ্যাম্পু।

নিউট্রিিয়াম ট্যান সহ, এতে রয়েছে প্রয়োজনীয় ভিটামিন এবং খনিজ যা আপনার মাথার ত্বকে পুষ্টি জোগাবে এবং দীর্ঘ সময়ের জন্য খুশকি মুক্ত রাখবে। এবং এটি প্রতিবার ঝরনার সময় একটি সতেজ অনুভূতি দেয়, যা আমি সত্যিই পছন্দ করি। চুল এবং মাথার ত্বক পরিষ্কার রাখার জন্য এটি সেরা পছন্দ!

2) দ্বিতীয়ত আপনি সপ্তাহে 1 দিন ঘরে তৈরি হেয়ার প্যাক ব্যবহার করতে পারেন, অতিরিক্ত চুলের যত্নের জন্য! টক দই, সামান্য লেবুর রস এবং ডিম দিয়ে একটি প্যাক তৈরি করে চুলে লাগিয়ে রাখুন ৩০ মিনিট। তারপর ভালো করে শ্যাম্পু করে নিন। চুল হবে নরম ও নিয়ন্ত্রণযোগ্য।

তারপর হিজাবিদের জন্য কিছু টিপস এবং কৌশল জানা গেল। এবং চুলের যত্নে কার্যকর একটি শ্যাম্পুর পরামর্শও পেয়েছেন, তাই না? আমি নিয়মিত পরিষ্কার হিজাব বিশুদ্ধ শ্যাম্পু ব্যবহার করছি কারণ আমাকে প্রতিদিন কাজের জন্য বাইরে যেতে হয়। আর ঘরে ফিরে চুল ও মাথার ত্বক পরিষ্কার করা জরুরি।

এই শ্যাম্পু ব্যবহারে আমার খুশকির সমস্যা নিয়ন্ত্রণে এসেছে, চুল পড়াও কমে গেছে। তাই ভাবলাম আপনাদের সাথে শেয়ার করব, যাতে আমার মত মানুষ যারা নিয়মিত হিজাব পরে বের হচ্ছে, তারা তাদের চুলের যত্নের জন্য সঠিক শ্যাম্পু নির্বাচন করতে পারে।

By Taher

আসসালামু-আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহি-ওয়াবারাকাতুহু ।আমি মোঃ আবু তাহের ইসলাম (আমান)। আমি গয়াবাড়ি স্কুল এন্ড কলেজ পড়াশোনা করি । আমি এসএসসি পরীক্ষার্থী 2022 সাল । আমার সাবজেক্ট একাউন্টিং। আমি ভবিষ্যতে যেকোনো একটি ভালো প্রতিষ্ঠানে চাকরি করে আমার জীবনকে পরিপূর্ণ আঙ্গিকে নতুন করে সাজানোর আশাবাদী । আমার পুরো জীবনটা হচ্ছে, একটা সরল অংকের মত । যতই দিন যাচ্ছে ততই আমি সমাধানের দিকে যাচ্ছি ইনশাআল্লাহ......নতুনের প্রতি মানুষের আকর্ষণ চিরস্থায়ী- তাই https://dailyinfo71.com/ ওয়েবসাইটে নিয়মিত লেখালেখি করি। ধন্যবাদ সবাইকে

Leave a Reply

Your email address will not be published.